জন্মদিনে রোজা ভেঙে বিরল গ্রুপের রক্ত দিয়ে মুমূর্ষু রোগীকে বাঁচালেন যুবক

428

মোথাবাড়ি, ২ মেঃ নিজের জন্মদিনে রোজা ভেঙে প্রায় ৩০ কিলোমিটার মোটরবাইক চালিয়ে ব্লাড ব্যাংকে গিয়ে রক্তদান করে করলেন পঞ্চনন্দপুর এলাকার যুবক আকবর শেখ। কালিয়াচকের অনন্তপুরের বাসিন্দা এমদাদুল হক (৩০) এর গত কয়েকবছর থেকে ২টি কিডনি খারাপ। অন্যদিকে, বিরলপ্রাপ্ত এবি নেগেটিভ রক্তের গ্রুপ। ফলে, এমদাদুলের পরিবারের লোকজনও চরম সমস্যায় পড়েন। বহু জায়গায় চেষ্টা করেও, সে রক্ত পায়নি। অবশেষে রক্ত নিয়ে কাজ করা হোয়াটসঅ্যাপ ভার্চুয়াল গ্রুপ সেভ হিউমিনিটিতে আবেদন জানাতেই, নজরে পড়ে যায় ওই গ্রুপের সদস্য আকবর শেখের। প্রতিবছর ২ মে দিনটিতে বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে নিজের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে নিমগ্ন থাকেন। কিন্তু, এবারে লকডাউনে সে ঘরবন্দি। তাই সেভাবে কোনও আয়োজন ছিল না। আকবর রোগীর বিপদের কথা ভেবে এগিয়ে আসেন। রোজা ভেঙেই রক্তদান করতে চলে যান।

আকবর জানিয়য়েছেন, এবারে অন্যরকমভাবে তিনি জন্মদিন পালন করলেন। মানুষের জন্য এটুকু করতে পেরে তিনি খুব খুশি। একজনের বিপদে পাশে দাঁড়াতে, পেরে তিনি গর্বিত। রোগী এনামুলের দাদা  জানিয়েছেন, এ‌বি নেগেটিভ অত্যন্ত বিরল গ্রুপের রক্ত হওয়ার কারণে, জেলায় ওই গ্রুপের রক্ত মিলছিল না। এখন লকডাউন থাকায়, চরম রক্ত সংকট চলছে। এই পরিস্থিতিতে আকবর যা করেছে, তা তাঁদের পরিবারের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকল। গোটা পরিবারের সকলেই আকবরের জন্মদিনে তাঁকে আশীর্বাদ দিয়েছেন।

- Advertisement -

লকডাউনের মাঝে জেলায় চরম রক্ত সংকট হওয়ায় ব্লাড ব্যাংকে গিয়েও, বঞ্চিত হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এই পরিস্থিতিতে গত কয়েক মাস থেকেই হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ চালাচ্ছে পঞ্চনন্দপুরের ছেলেরা। সেটির নাম সেভ হিউম্যানিটি। প্রতিদিন নিয়ম করে এই সংস্থার ছেলেরা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে তথ্য আদান-প্রদান করেন। পাশাপাশি, মালদা জেলা ব্লাড ব্যাংকে রক্ত প্রদাণ করে চলেছেন। বছরখানেক ধরে এভাবেই জেলায় রক্তের সংকট মেটাতে লড়াই করছে কালিয়াচক-২ ব্লকের পঞ্চানন্দপুর এলাকার শতাধিক যুবক। সংগঠনের সক্রিয় পক্ষে রবিউল ইসলাম জানান, বিগত ১ বছরে শতাধিক ব্যক্তি নিজস্ব উদ্যোগে মালদা শহরে রক্তদান করতে এগিয়ে এসেছেন। রক্তদান শিবিরের থেকে তাঁদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ অনেক সক্রিয়।