রায়গঞ্জ, ১০ মেঃ অজ্ঞাত পরিচয় এক যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হল রায়গঞ্জে। রায়গঞ্জ শহরের স্টেডিয়াম লাগোয়া বীরনগর এলাকায় পরিদপ্তর নর্দমার পাশ থেকে ওই যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। স্থানীয় এক বাসিন্দার নজরে আসে বিষয়টি। এরপর খবর দেওয়া হয় পুলিশে। বুধবার গভীর রাতে রায়গঞ্জ থানার আইসি সুমন্ত বিশ্বাসের নেতৃত্বে পুলিশ বাহিনী যুবকের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে পাঠায়। দেহে একাধিক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া মাথায় বিভিন্ন অংশে ক্ষতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, কেউ হয়ত ওই যুবককে খুন করে বীরনগর এলাকায় ফেলে যায়। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরই মৃত্যুর সঠিক কারণ বোঝা যাবে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতের নাম অমিত কুন্ডু(২৫)। বাড়ি রায়গঞ্জ শহরের ইন্দিরা কলোনি এলাকায়। মৃতের মা বলেন, বুধবার বিকেলে ছেলেকে তাঁর দুই বন্ধু বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এদিন বিকেলে তিনি জানতে পারেন ছেলের মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছে। এরপর মর্গে গিয়ে শনাক্ত করা হয় অমিতকে। পরিবার সূত্রে খবর, অমিত কুন্ডু ওরফে নটো জম্মুতে শ্রমিকের কাজ করত। দিন কয়েক আগে কাজ থেকে ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসে।

পুলিশ সুপার শ্যাম সিং বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে পল্টন দত্ত ও সুব্রত সাহকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত।

সংবাদদাতাঃ বিশ্বজিৎ সরকার