দামোদরে তলিয়ে যাওয়া স্কুলছাত্রের দেহ উদ্ধার

191

আসানসোল: দামোদরে তলিয়ে যাওয়া স্কুলছাত্রের দেহ উদ্ধার। সোমবার আসানসোলের রানিগঞ্জ থানার বল্লভপুরের দামোদর নদী থেকে দেহটি উদ্ধার হয়। এদিন দেহটি আসানসোল জেলা হাসপাতালে ময়নাতদন্ত হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

মৃত ছাত্রের নাম অখিলেশ কুমার (১৩)। বাড়ি রানিগঞ্জের গীর্জাপাড়ার কাঠগাদারে। রানিগঞ্জের বল্লভপুর রঘুনাথচক হিন্দি হাইস্কুলের নবম শ্রেণির পড়ুয়া ছিল সে। এছাড়াও সে প্রতিভাবান ক্রিকেট খেলোয়াড়ও ছিল। এবছরই অখিলেশ কুমার সিএবি পরিচালিত অনূর্ধ্ব ১৩ অম্বর রায় সাব জুনিয়র ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় সুযোগ পেয়েছিল।

- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অন্যান্য দিনের মতো রবিবার সকালে রানিগঞ্জের বল্লভপুর পেপার মিল সংলগ্ন মাঠে বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে যায় অখিলেশ। সেই খেলার শেষে মাঠের অদূরে বল্লভপুর শ্মশানঘাট সংলগ্ন দামোদর নদীতে স্নান করতে নামে তারা। কিন্তু আচমকাই জলের তোড়ে তলিয়ে যায় অখিলেশ। দুপুরে বাড়ির লোকেরা খবর পান যে, অখিলেশ দামোদর নদীতে তলিয়ে গিয়েছে। বাড়ির লোক ও এলাকার বাসিন্দারা সেখানে ছুটে আসেন। খবর যায় রানিগঞ্জের বল্লবপুর ফাঁড়িতে। প্রথমে আশপাশের লোকেরাই দামোদরে তার খোঁজে তল্লাশিতে নামেন। পরে জেলা ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের দল দামোদরে উদ্ধার কাজে নামে। রাত পর্যন্ত দামোদরে তল্লাশি চালিয়েও খোঁজ পাওয়া যায়নি অখিলেশের। এরপর এদিন বল্লভপুরের কিরণবালি ঘাটে অখিলেশের দেহ ভাসতে দেখা যায়। পুলিশ এসে সেই দেহ উদ্ধার করে।

প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশের অনুমান, সাঁতার না জেনে দামোদর নদীতে স্নান করতে নামাতেই এই ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ও স্থানীয় পঞ্চায়েতের তরফে বলা হয়েছে, স্নানের নির্দিষ্ট ঘাট ছাড়া অন্য কোথাও যাতে কেউ স্নান করতে না নামে তার দিকে নজর রাখা হবে। এ নিয়ে প্রচারও করা হবে।