নিমতিতা স্টেশনে বোমাবাজির ঘটনায় উঠছে একাধিক প্রশ্ন

136

মুর্শিদাবাদ: মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশনে বোমাবাজির ঘটনায় ইতিমধ্যেই একাধিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ঘটনায় গোরুপাচার চক্রের যোগ রয়েছে কিনা, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। বছর তিনেক আগে গোরুপাচারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। সীমান্তে গোরুপাচারের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে তিনি একাধিকবার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে বক্তব্যও রেখেছিলেন।

শোনা যায়, সে কারণে তাঁকে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের বিরাগভাজন হতে হয়েছিল। গোরুপাচার নিয়ে রঘুনাথগঞ্জ থানায় এফআইআরও করেছিলেন জাকির সাহেব। সেটাকে কেন্দ্র করে রঘুনাথগঞ্জ থানার তৎকালীন আইসি সৈকত রায়ের সঙ্গে তাঁর তিক্ততা চরমে পৌঁছেছিল।

- Advertisement -

সূত্রের খবর, সেই সময় জাকির হোসেন গোরুপাচার চক্রের মাথা হিসেবে যাঁদের চিহ্নিত করেছিলেন তাঁদের একজন সম্প্রতি বিদেশ থেকে রাঘুনাথগঞ্জে ফিরে এসেছেন। আর নিমতিতা এলাকাটি ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী। সেকারণেই উঠছে একাধিক প্রশ্ন। সমস্ত কিছু খতিয়ে দেখছেন সিআইডির আধিকারিকরা।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে নিমতিতা স্টেশনে বোমাবাজিতে গুরুতর জখম হয়েছেন জঙ্গিপুরের বিধায়ক তথা রাজ্যের শ্রম প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন সহ তাঁর বেশ কয়েকজন অনুগামী। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনায় মন্ত্রী সহ মোট ২২ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে মন্ত্রী সহ ৯ জনকে রাতেই কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বোমার তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে ঘটনায় কয়েকজনের হাত-পা উড়ে গিয়েছে। যদিও দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মন্ত্রীর অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল।

তৃণমূলের জেলা সভাপতি আবু তাহের খান বলেন, ‘পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশের কাছে দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়ার আর্জি জানিয়েছি।‘ যদিও এবিষয়ে পুলিশের কোনও কর্তা মন্তব্য করতে চাননি।