ভোটের মুখে তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে উদ্ধার বোমা

262

বক্সিরহাট: ভোটের মুখে তৃণমূল নেতার বাড়ি থেকে বোমা উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কোচবিহারের বক্সিরহাটে। দলের বিরোধীদের দিকেই অভিযোগ তির। মঙ্গলবার বক্সিরহাট থানার মানসাই গ্রামে তৃণমূলের বারকোদালি ২ অঞ্চল কমিটির সহ সভাপতি মেহের আলির বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় দুটি বোমা। তাঁর বাড়ির বারান্দায় ওই দুটি বোমা রাখা ছিল বলে অভিযোগ।

মেহের আলি জানান, এদিন সকালে তাঁর ভাই আবেদ আলির স্ত্রী কোহিনুর বিবি বাড়ির উঠোন পরিষ্কার করতে গিয়ে বোমা দুটি দেখতে পান। স্ত্রীর চিৎকারে বাড়ির সকলে সেখানে ছুটে আসেন। বোমা দেখতে পেয়ে তড়িঘড়ি খবর দেন বক্সিরহাট থানায়। পুলিশ পৌঁছে বোমা দুটি উদ্ধার করে। দলের অপর গোষ্ঠীর নেতা তথা বারকোদালি ২ গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য আজিদুল হক ও তাঁর অনুগামীরাই তাঁদের মেরে ফেলার জন্য এই কাজ করেছে বলে অনুমান মেহের আলির। এর আগেও অঞ্চল সহ সভাপতি হওয়ার পর ওই গোষ্ঠী তাঁর ভাইদের ওপর দু’বার হামলা করে বলে অভিযোগ মেহের আলির।

- Advertisement -

সোমবার শালবাড়িতে দলের ব্লক সভাপতি ধনেশ্বর বর্মনের ডাকা ১১টি অঞ্চলের কর্মীসভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন মেহের আলি। আর ঠিক তারপর দিনই এই ঘটনা। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করার পাশাপাশি দলের ব্লক সভাপতিকেও জানানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেন তৃণমূলের স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য আজিদুল হক। তিনি জানান, তাঁদের বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ মিথ্যে। এই ঘটনার সঙ্গে তিনি বা তাঁর অনুগামী কেউই জড়িত নন। মেহের আলি প্রচারের আলোয় আসতে ও তাঁকে দলের কাছে হেয় করতে একাজ করা হচ্ছে। তাঁদের ফাঁসাতে চাইছে মেহের আলি ও তাঁর লোকেরা। বিষয়টি তিনি দলের জেলা সভাপতিকে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বক্সিরহাট থানার ওসি অ্যান্থনী হারা জানান, মেহের আলির বাড়ির উঠোন থেকে দুটি সুতলি বোমা উদ্ধার করা হয়েছে। পরে বোমা দু’টিকে জলে ডুবিয়ে নিষ্ক্রিয় করা হয়। থানায় লিখিত কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি। তবে ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।