বইমেলার উদ্বোধন মালবাজার, বালুরঘাটে

195

মালবাজার ও বালুরঘাট: বই পড়ার আবেদন জানিয়ে মালবাজারে ৩২ তম জলপাইগুড়ি জেলা বই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হল। সোমবার সন্ধ্যায় জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদের সভাধিপতি উত্তরা বর্মন এবং অন্যান্য অতিথিরা প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে বইমেলার উদ্বোধন করেন। স্থানীয় গ্রন্থাগার কৃত্যক আয়োজিত বইমেলা তত্ত্বাবধান করছে গ্রন্থাগার পরিষেবা অধিকার ও জনশিক্ষা প্রসার এবং গ্রন্থাগার পরিষেবা বিভাগ। মাল পুরসভা বইমেলা আয়োজনে যাবতীয় সহযোগিতা করছে। বইমেলার ৪৬ টি পাবলিকেশন সংস্থার ৬০ স্টল আছে । বইমেলা আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে সকলের কাছে করোনা প্রতিরোধের নিয়মাবলী মেনে চলার আবেদন করা হয়েছে। বইমেলার মাঠে প্রবেশের দুদিকে স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। মাস্ক দেওয়া হচ্ছে। মেলায় বইপ্রেমীদের আনাগোনা শুরু হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় মাল শহরের মাল আদর্শ বিদ্যাভবনের মাঠে ৩২ তম জলপাইগুড়ি জেলা বই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদের সভাধিপতি উত্তরা বর্মন, রাজগঞ্জের বিধায়ক খগেশ্বর রায়, মালের বিধায়ক বুলু চিক বরাইক, উত্তরবঙ্গ সংবাদ জেনারেল ম্যানেজার প্রলয় কান্তি চক্রবর্তী, বিশিষ্ট কবি গৌতম কুমার ভাদুড়ি, দেবাশীষ দাস ,মাল পুরসভার প্রশাসকমন্ডলীর চেয়ারর্পাসন স্বপন সাহা, জেলা গ্রন্থাগার আধিকারিক সৈকত গোস্বামী, মাস এডুকেশন এক্সটেনশন ডেপুটি ডিরেক্টর ঋত্বিক রায় প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

- Advertisement -

উত্তরা বর্মন বলেন, ‘আমরা করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে চেষ্টা করছি। আমাদের সকলের কাছেই বই ভালো বন্ধু হতে পারে।’ বিশিষ্ট কবি গৌতম কুমার ভাদুরী বলেন, ‘বিজ্ঞান প্রযুক্তির যুগেও বই সাবলীলভাবেই আছে। বইকে সকলেই ভালোবাসে। বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।’ আর এক কবি দেবাশীষ দাস বলেন, ‘সাহিত্য মনের ভেতর লুকিয়ে আছে।’ উত্তরবঙ্গ সংবাদের জেনারেল ম্যানেজার প্রলয় কান্তি চক্রবর্তী বলেন, ‘নবীন প্রজন্মের মধ্যে অস্থিরতা, বিষন্নতা ,হতাশা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। বইয়ের সাথে আত্মিক যোগ তৈরি করতে পারলে এই পরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসা যেতে পারে।’ বইমেলার মঞ্চ থেকে মাল শহরের কবি সঞ্জয় সোমের লেখা বই ‘তোমাকে চাই’-এর আবরণ উন্মোচন করা হয়। প্রলয় কান্তি চক্রবর্তী বইমেলার স্মরণিকার উদ্বোধনও করেন। উদ্বোধনী দিনে বিশিষ্ট সঙ্গীতশিল্পী জয়তী চক্রবর্তী উপস্থিত ছিলেন। বইমেলাকে কেন্দ্র করে বুক রিডিং, কবি সম্মেলন, সেমিনার আয়োজিত হবে।

অন্যদিকে উদ্বোধনের আগেই বালুরঘাটে বইমেলায় ভিড় জমান বইপ্রেমীরা। যার জেরে চলতি বছরের বইমেলায় বই বিক্রি নিয়ে আশায় বুক বাঁধছে প্রকাশনা সংস্থাগুলো।এই বছর দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বইমেলা ২৫ বছরে পড়ল। এবার কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ৪৭ টি প্রকাশনা সংস্থা তাদের বই নিয়ে উপস্থিত হয়েছেন বালুরঘাট হাই স্কুল ময়দানে আয়োজিত জেলা বইমেলায়। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের জনশিক্ষা ও প্রসার বিভাগের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত রাষ্ট্রমন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী সোমবার এই বইমেলার উদ্বোধন করেন। তার পরেই জেলাবাসীর জন্য বইমেলা প্রাঙ্গণ খুলে দেওয়া হয়।