শিশুর নাক দিয়ে বের হল ব্রেন টিউমার, বিশ্বের কনিষ্ঠতম রোগীর এন্ডোস্কোপিক সার্জারি

561

চণ্ডীগড়: বয়স মাত্র ১৬ মাস। ছোট্ট শিশুকন্যার মাথায় বাসা বেঁধেছিল টিউমার। চিকিৎসার মাধ্যমে সেই ব্রেন টিউমার কেটে নাক দিয়ে বের করা হল। যাকে ডাক্তারি ভাষায় বলা হয় এন্ডোস্কোপিক সার্জারি। বিশ্বের প্রথম কনিষ্ঠতম রোগীর এই অস্ত্রোপচারের সাক্ষী থাকল চণ্ডীগড়।

জানা গিয়েছে, উত্তরাখণ্ডের বাসিন্দা ওই শিশুকন্যা। জন্মের পর সবকিছু স্বাভাবিক থাকলেও। কিছু মাস পর থেকে তার মা লক্ষ্য করেন শিশুর দৃষ্টিতে সমস্যা রয়েছে। কিছু দেখতে পাচ্ছে না ১৬ মাসের ওই একরত্তি। এরপর স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শক্রমে তাকে চণ্ডীগড়ের পিজি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই নানা পরীক্ষা করার পর তার ব্রেন টিউমার লক্ষ্য করা যায়। তবে, এইটুকু শিশুর মাথার খুলি কেটে অস্ত্রপচার করলে তা বিপজ্জনক হবে তাই চিকিৎসার উদ্দেশে হাসপাতালে মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। পরবর্তীতে বিশেষজ্ঞদের মতামত অনুসারে শিশুর এন্ডোস্কোপিক সার্জারি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

- Advertisement -

টিউমারটির আয়তন ছিল ৩ সেন্টিমিটার এবং তা অপটিক নার্ভের কাছেই বেড়ে উঠছিল। ফলে শিশুর দৃষ্টিশক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল। পরে টানা ৬ ঘণ্টা অপারেশন চলার পর নাক দিয়ে বের করা হয় ব্রেন টিউমার। সাফল্য মিলল চণ্ডীগড় পিজি হাসপাতালের চিকিৎসকদের।

উল্লেখ্য, এর আগে আমেরিকায় দু’বছর বয়সী এক শিশুর এন্ডোস্কপিক সার্জারি হয়। ভারতবর্ষ তথা বিশ্বে প্রথম ১৬ মাসের শিশুর এই সার্জারি হল। এই বিরলতম ঘটনার সাক্ষী থাকল চণ্ডীগড়।