বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু বিএসএফ আধিকারিকের

1089

মুর্শিদাবাদ, ১৭ অক্টোবরঃ বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হল বিএসএফ জওয়ানের ১১৭ নম্বর ব্যাটালিয়নের এক হেড কনস্টেবলের। এই ঘটনায় গুরুতর আহত আরও একজন জওয়ান। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের জলঙ্গী থানার কাকমারি চরের বর্ডার আউট পোস্টে ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্তে। আহত সেনাকে গুরুতর আহত অবস্থায় মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছে। বিএসএফ সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ার আধিকারিক জানিয়েছেন বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী গুলিতে মৃত্যু হয়েছে বিজয় ভান সিং(৫০) নামে এক হেড কনস্টেবল ঘটনায় আহত হয়েছে রাজবীর যাদব নামে অন্য এক জওয়ান যিনি আবার নৌচালক। তিনি জানান, ভারতীয় ৩ মৎসজীবী পদ্মার ভারতীয় সীমান্তে মাছ ধরতে গেলেও সেখান থেকে তাদের আটক করে নিয়ে যায় বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী।পরে দুইজনকে ছেড়ে দিলেও, প্রনব মণ্ডল নামে এক মৎসজীবীকে আটকে রাখা হয়। এরপরেই বৃহস্পতিবার সকালে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর এসআই হেড কনস্টেবল এবং চারজন জওয়ান বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিবির) সঙ্গে ফ্ল্যাগ মিটিং করতে ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্তে যান। কিন্তু সকাল ১১টায় নির্ধারিত সময়ে সেখানে পৌঁছালেও ৪০ মিনিট পর্যন্ত বাংলাদেশ সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর কোনও আধিকারিক আসেনি। বরং কিছুক্ষণ পর বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী তাদের ঘিরতে শুরু করে। বিএসএফ বেগতিক বুঝে বোট ঘুরিয়ে ফিরে আসার সময়ই তাদের ওপর এলোপাথারি গুলি চালাতে থাকে বিজেবি।