নাড়া পোড়ানো অব্যাহত বাংলায়, দূষণের আশঙ্কা

127

বর্ধমান: মাত্রাতিরিক্ত দূষণের জেরে ধোঁয়াশায় ঢেকেছে রাজধানী দিল্লি। যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। এই দূষণের পেছনে অন্যতম কারণ হিসেবে উঠে এসেছে চাষের জমিতে নাড়া পোড়ানোর ঘটনা। তার পরিপ্রেক্ষিতে নাড়া পোড়ানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে শীর্ষ আদালত। কিন্তু এত কিছুর পরেও হুঁশ ফেরেনি রাজ্যের শস্যগোলা বলে পরিচিত পূর্ব বর্ধমান জেলার চাষিদের। রাজ্যের কৃষি ও পরিবেশ দপ্তরের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এখনও বেপরোয়াভাবে জমিতে নাড়া পুড়িয়েই চলেছেন তাঁরা। এর জেরে দূষণের মাত্রা বেড়ে চলেছে। এমনটা চলতে থাকলে দিল্লির মতো বাংলার গ্রামীণ এলাকাগুলি ধোঁয়াশায় ঢেকে যাবে বলে আশঙ্কা করছেন আবহাওয়া ও পরিবেশবিদরা।

সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী জয়দীপ মুখোপাধ্যায় জানান, বাংলার প্রশাসন জমিতে নাড়া পোড়ানো বেআইনি ঘোষণা করেছে। তারপরেও যাঁরা জমিতে নাড়া পোড়াচ্ছেন তাঁদের বিরুদ্ধে কৃষি দপ্তর আইনমাফিক কড়া ব্যবস্থা নিতেই পারে। এই ব্যাপারে প্রশাসন উদাসীনতা দেখালে আগামীদিনে দিল্লির মতো পরিণতি হতে পারে বাংলার।

- Advertisement -

রাজ্যের কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার জানান, জমিতে নাড়া পোড়ালে মাটির গঠন ও গুণমান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। উপকারী জীবাণুও মরে যায়। এমনকি জমি বন্ধ্যাও হয়ে যায়। চাষের স্বার্থে জমিতে নাড়া পোড়ানো থেকে বিরত থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।