বাসভাড়া: জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় পারস্পরিক দোষারোপের পালা চলছে সংগঠনের মধ্যে

189

স্বরূপ বিশ্বাস, কলকাতা: বেসরকারি বাসমালিকদের ভাড়া বাড়ানোর হার ঘোষণা হতেই প্রতিযোগিতায় নেমেছে বাসমালিক কর্তৃপক্ষ। এই নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় এবার পারস্পরিক দোষারোপের পালা চলছে বাসমালিক সংগঠনের মধ্যে। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকেই সরকারি বাস ও মিনিবাস সংগঠনের নেতাদের মধ্যে এই নিয়ে পারস্পরিক দোষারোপের পালা শুরু হয়েছে।

পরিবহন দপ্তর সূত্রে খবর, মালিক সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে বাসের ভাড়ার বিভিন্ন হার ঘোষণা নিয়ে ক্ষুব্ধ ও বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। সংবাদমাধ্যমে মালিকদের এই মনোভাবের কথা জানা মাত্রই মুখ্যমন্ত্রী পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে ডেকে নির্দেশ দেন বেসরকারি বাস ও মিনিবাসের বাড়তি ভাড়া সরকার অনুমোদন করছে না। এটাই নবান্নে ঘোষণা করা হবে।

- Advertisement -

মুখ্যমন্ত্রী জানান, ভাড়া নিয়ে মন্তব্য করার বিষয়টি সংগঠনের ওপর ছেড়ে দেওয়ার মানে তো এটা নয় যে মানুষের এই কঠিন সময়ে তারা যা খুশি তাই ভাড়া নেবে। সরকার এর অনুমোদন করছে না। মুখ্যমন্ত্রী নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে সরকারের মনোভাবের কথা জানিয়ে দেযন। আর এতেই চরম হতাশ বাস মালিক সংগঠনের নেতারা। তারপর থেকেই নেতাদের মধ্যে একে অপরের উপর দোষা চাপানো শুরু হয়েছে।

সমিতির সাধারণ সম্পাদক রাহুল চট্টোপাধ্যায় বলেন, যাদের কোনও যোগ্যতা নেই তারাই কোনও আলোচনার আগেই নিজেদের খেয়ালখুশি মতো ভাড়ার হার সংবাদমাধ্যমের কাছে জানিয়ে দিলেন। আর এখন এই জটিলতায় ভুগতে হবে সবাইকে। সরকারের কাছে তাদের অনুরোধ, বাস নামাতে এখনও আগ্রহী মালিকেরা। সবদিক বিবেচনা করে সরকার সিদ্ধান্ত নিলে এই ব্যাপারে মিমাংসা সম্ভব। বিশেষ পরিস্থিতিতে বিশেষ দরকার বুঝে সংশ্লিষ্ট সব মহলের আলোচনা করা উচিত।