জ্যোতি সরকার, জলপাইগুড়ি, ৭ জুলাই : এক দশকেও জলপাইগুড়িতে বাস টার্মিনাস তথা আধুনিক মার্কেট কমপ্লেক্স তৈরি হল না। যার ফলে জলপাইগুড়ি শহরের বুকে প্রায় এক একর সরকারি জমি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ পুর কর্তৃপক্ষ ওই জমি ফেরত চাইছেন। পাশাপাশি বাস টার্মিনাস তৈরি না হওয়ায় সমস্যায় পড়ছেন এনবিএসটিসির কর্মীরাও।

বছর দশেক আগে প্রকল্পটি নিয়ে জলপাইগুড়ি পুরসভা, উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগম ও একটি শিল্পগোষ্ঠীর মধ্যে চুক্তি হয়েছিল। চুক্তি অনুসারে নেতাজিপাড়া বাস টার্মিনাস সংলগ্ন এলাকায় প্রায় এক একর জমি ওই শিল্পগোষ্ঠীকে দেওয়া হয়। জলপাইগুড়ি পুরসভার ওই জমিটি অসিত সেন পুরপ্রধান থাকার সময় এনবিএসটিসি-কে বাস টার্মিনাস তৈরির জন্য লিজ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ৫ বছরে টার্মিনাস তৈরি করতে পারেনি তারা। পরবর্তীতে সুভাষ চক্রবর্তী পরিবহণমন্ত্রী থাকার সময় তৎকালীন পুরপ্রধান মোহন বসুর সঙ্গে আলোচনা করে জমিটি ওই শিল্পগোষ্ঠীকে দেওয়া হয়। জমির জন্য এককালীন ৬ কোটি টাকা পায় পুর কর্তৃপক্ষ। চুক্তিতে বলা হয়েছিল, ওই শিল্পগোষ্ঠী আধুনিক বাস টার্মিনাস ও মার্কেট কমপ্লেক্স তৈরি করবে। বাস টার্মিনাসে এনবিএসটিসির পাশাপাশি বেসরকারি মালিকানাধীন বাসও দাঁড়াবে। অন্যদিকে, মার্কেট কমপ্লেক্সটি ওই শিল্পগোষ্ঠী পরিচালনা করবে। কিন্তু ওই শিল্পগোষ্ঠী এই প্রকল্পের জন্য একটি ইটও গাঁথেনি। বর্তমানে পরিত্যক্ত ওই জমিতে গোরু ঘুরে বেড়ায়।

বিষয়টি নিয়ে ওই শিল্পগোষ্ঠীর ভূমিকার ক্ষুব্ধ জলপাইগুড়ির পুরপ্রধান মোহন বসু। তিনি বলেন, চুক্তির পর প্রায় এক দশক কেটে গিয়েছে। কিন্তু এখনও কাজ শুরু হয়নি। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত না হওয়ায় সবারই সমস্যা হচ্ছে। ওরা আমাদের জমি ফিরিয়ে দিক। আমরা ওদের টাকা ফিরিয়ে দেব। তিনি জানান, এভাবে দীর্ঘদিন সরকারি জমি ফেলে রাখাটা চুক্তিবিরোধী। জমি ফিরিয়ে দিলে পুরসভা রাজ্য সরকারের সহায়তায় সেখানে বাস টার্মিনাস তৈরিতে উদ্যোগী হবে। অন্যদিকে, টার্মিনাস তৈরি না হওয়ায় এনবিএসটিসির কর্মীরা খোলা আকাশের নীচে বাস দাঁড় করাতে বাধ্য হচ্ছেন। এনবিএসটিসি কর্তৃপক্ষও চাইছেন, দ্রুত টার্মিনাস তৈরি হোক। সংস্থার এক পদস্থ আধিকারিক জানান, টার্মিনাস তৈরি না হওয়ায় বাস দাঁড় করানো সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সমস্যা বাড়ছে। পাশাপাশি টার্মিনাস তৈরি হলে যাত্রীদের আরও ভালোভাবে পরিসেবা দেওয়া যাবে।

বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির নেতারাও। জলপাইগুড়ি জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক বাপি গোস্বামী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে শহরের উপর এতটা জমি ফাঁকা পড়ে রয়েছে, এটা হতে পারে না। ওই শিল্পগোষ্ঠীকে চুক্তি অনুসারে বাস টার্মিনাস ও মার্কেট কমপ্লেক্স তৈরিতে বাধ্য করা উচিত। এই দাবিতে আন্দোলন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, জলপাইগুড়ি জেলা কংগ্রেস সভাপতি নির্মল ঘোষদস্তিদার বলেন, আধুনিক বাস টার্মিনাস তৈরি না হওয়ায় নাগরিকদের সমস্যা বেড়েছে। অন্যদিকে, মার্কেট কমপ্লেক্স হলে কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়ত। বিষয়টি নিয়ে দ্রুত পদক্ষেপ করা উচিত।