ব্যবসায়ীকে ধারাল অস্ত্রের কোপ

345

রায়গঞ্জ: দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে এক ব্যবসায়ীকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর জখম করল একদল দুষ্কৃতী। ওই ব্যবসায়ীর কাছে থাকা ২০ হাজার টাকা দামের মোবাইল ফোন নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। মঙ্গলবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ করণদিঘী থানার ভাটোয়ারা গ্রামের ঘটনা।

দুষ্কৃতীদের হামলায় রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়ে ওই ব্যবসায়ী। স্থানীয় বাসিন্দারা চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে এসে দেখে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে এক যুবক। খবর যায় করণদিঘি থানায় পুলিশ এসে ওই যুবককে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পাশাপাশি পরিবারকে ফোন মারফত সমস্ত ঘটনা জানায়। বছর ২২শের অমরজিৎ মাহাতো নামে ওই ব্যবসায়ীর টুঙ্গীদীঘি এলাকায় ট্রাক্টরের শোরুম ও যন্ত্রাংশের দোকান রয়েছে। সেই দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে দুষ্কৃতীরা টাকা লুট করার জন্যই রাস্তা আগলে মাথা সহ শরীরের একাধিক জায়গায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের শল্যচিকিৎসক রাজা বসাক মস্তিষ্কে সিটি স্ক্যান করার জন্য পরামর্শ দেন। এদিন সন্ধ্যায় ওই ব্যবসায়ীর সিটিস্ক্যান রিপোর্টে রক্ত জমাট বাঁধার ছবি দেখা গিয়েছে। এরপর বুধবার ওই ব্যবসায়ীকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।

- Advertisement -

ঘটনায় করণদিঘি থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হলেও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, দোকান থেকে বাড়ি যাওয়ার সময় একদল দুষ্কৃতী ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করার চেষ্টা করে। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল ভর্তি করলে মস্তিষ্কে গুরুতর জখম থাকায় কর্তব্যরত শল্যচিকিৎসক উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেছে। ঘটনার তদন্তে করণদিঘী থানার পুলিশ।