নয়াদিল্লি, ৭ ফেব্রুয়ারিঃ দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর জলপাইগুড়িতে কলকাতা হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চ তৈরির অনুমতি দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা। বুধবার মন্ত্রীসভার বৈঠকের পর এই ঘোষণা করা হয়। দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি ও কোচবিহার জেলার বিচারবিভাগীয় প্রক্রিয়া এই সার্কিট বেঞ্চের আওতায় আসবে। ২০০৬ সালের ১৬ জুন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা জলপাইগুড়িতে কলকাতা হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চ তৈরির ব্যাপারে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। তারপর থেকে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে একাধিকবার বিচারপতিদের প্রতিনিধিদল সার্কিট বেঞ্চের পরিকাঠামো খতিয়ে দেখতে জলপাইগুড়িতে এসেছেন। কিন্তু নানা টালবাহানায় সার্কিট বেঞ্চ চালু হওয়ার বিষয়টি পিছিয়েই যাচ্ছিল। অবিলম্বে সার্কিট বেঞ্চ চালুর দাবি নিয়ে আন্দোলন শুরু করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। অবশেষে ময়নাগুড়ির চূড়াভাণ্ডারে প্রধানমন্ত্রীর জনসভার আগেই সার্কিট বেঞ্চ চালুর বিষয়ে সবুজ সংকেত দেওয়া হল। লোকসভা ভোটের আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভার এই সিদ্ধান্ত ‘মাস্টারস্ট্রোক’ বলে মনে করছে উত্তরবঙ্গের রাজনৈতিক মহল।