কর্ম সুনিশ্চিতকরণ সহ একাধিক দাবিতে মাল কলেজে কর্মবিরতির ডাক

68

মালবাজার: কর্ম সুনিশ্চিতকরণ, বেতন পরিকাঠামো গঠনসহ একগুচ্ছ ইস্যু তুলে ধরে মালবাজারের পরিমল মিত্র স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ে কর্মবিরতি শুরু করেছে অস্থায়ী কর্মচারীরা। মঙ্গলবার অস্থায়ী কর্মচারীরা মহাবিদ্যালয়ের প্রধান গেটে তালা মেরে বিক্ষোভ কর্মসূচি করেন। এরজেরে মহাবিদ্যালয় কাজকর্ম বন্ধ থাকে। আন্দোলনকারী সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে বুধবার পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

পশ্চিমবঙ্গ কলেজ ক্যাজুয়াল এম্প্লয়িস সমিতির মালবাজার পরিমল মিত্র স্মৃতি মহাবিদ্যালয় ইউনিট কমিটির সম্পাদক অভ্রদীপ পোদ্দার বলেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন ধরে মহাবিদ্যালয়গুলিতে কর্মরত মহাবিদ্যালয়গুলির পরিচালন কমিটির মাধ্যমে আমরা নিয়োগপ্রাপ্ত। অথচ এদিন পর্যন্ত আমাদের বেতন কাঠামো গঠন কিংবা কর্ম সুনিশ্চিতকরনের কোনও উদ্যোগই নেওয়া হয় নি। এই দাবিতেই আমাদের তিনদিন আন্দোলন চলছে।‘ অভ্রদীপবাবু আরও বলেন, ‘ইতিমধ্যে মহাবিদ্যালয় অতিথি শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ক্ষেত্রে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এই শিক্ষক-শিক্ষিকারাও পরিচালন কমিটির মাধ্যমে নিয়োগপ্রাপ্ত। অথচ একইভাবে আমরা নিয়োগপ্রাপ্ত হলেও আমাদের দাবির প্রতি কর্ণপাত করা হচ্ছে না।‘ বলেন, ‘আমরা মহাবিদ্যালয় করোনাকালেও যাবতীয় দায়িত্ব সামলেছি। আমরা চাই আমাদের দাবি পূরণ করা হোক।‘

- Advertisement -

এদিন মহাবিদ্যালয়ের গেট বন্ধ করে অস্থায়ী কর্মচারীরা তুমুল শ্লোগান দেন। ইউনিট কমিটির সম্পাদক অভ্রদীপ পোদ্দার ছাড়াও সভাপতি তপতী বিশ্বাস, সদস্য অন্বেষা কুন্ডু, বিষ্ণু বিশ্বকর্মা প্রমূখ আন্দোলন কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দিয়েছেন। সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সোমবারও মহাবিদ্যালয় আন্দোলন করা হয়েছে। বুধবার পর্যন্ত দফায় দফায় আন্দোলন কর্মসূচি চলবে। তারপরেও দাবি পূরণ না হলে ধারাবাহিকভাবে আন্দোলন করা হবে। এদিকে আন্দোলনের জেরে এদিন মহা বিদ্যালয়ের কাজকর্ম বন্ধ ছিল। মহাবিদ্যালয় দুপুর পর্যন্ত খোলেনি।

অন্যদিকে, মহাবিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষা নন্দিতা মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘আমরা পূর্বেই অস্থায়ী কর্মচারীদের দাবির বিষয়ে ঊর্ধ্বতন মহলকে অবগত করেছি। এদফায় দাবি জানালে তাও ঊর্ধ্বতন মহলের গোচরে আনা হবে।‘