ব্লক অফিসের দাবিতে ভোট বয়কটের ডাক

220

গয়েরকাটা: মাদারিহাট বিধানসভা কেন্দ্রের গয়েরকাটার কৃষি বলয়ে ব্লক অফিসের সদরদপ্তর স্থাপন না করার সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ভোট বয়কটের পোস্টার পড়েছিল রবিবার। ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে এবার ভোট বয়কটের ডাকে সুর চড়ল ধূপগুড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের শালবাড়ি-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের দুরামারি ও শালবাড়ি-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের নাথুয়ায়। শালবাড়ি-১,  শালবাড়ি-২ ও সাকোয়াঝোরা-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি গয়েরকাটায় ব্লক অফিস স্থাপনের দাবি রয়েছে। যদিও সেই দাবি উপেক্ষা করেই বানারহাটে টিজি মৌজায় ব্লক অফিস স্থাপনের সরকারি নোটিফিকেশন জারি হয়। এরপরেই তিন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মানুষ পথে নামেন।

সোমবার মধ্য ডুয়ার্স উন্নয়ন মঞ্চ,  নাথুয়া ও কৃষি বলয়ে ব্লক অফিস আদায় কমিটির দুটি পৃথক সভা ও মিছিলের আয়োজন করা হয়। পাশাপাশি নাথুয়ায় সেতু নির্মানের দাবিও জানানো হয় এদিন। এদিনের মিছিল ও সভায় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক সংগঠনের সদস্যরা। এদিনের সভা ও মিছিল থেকে কৃষি বলয়ের মানুষের স্বার্থ না দেখার অভিযোগ তুলে বানারহাটে ব্লক অফিস স্থাপনের সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করে ভোট বয়কটের হুশিয়ারি দেন আন্দোলনকারীরা।

- Advertisement -

মধ্য ডুয়ার্স উন্নয়ন মঞ্চ, নাথুয়ার সম্পাদক বীরেন সোম বলেন, ‘ নাথুয়ার ফটিকটারি থেকে বর্তমান ধূপগুড়ি ব্লকের দুরত্ব প্রায় ১৫ কিমি। তবে, বানারহাটে ব্লক অফিস স্থাপন হলে সেখান থেকে দূরত্ব হবে প্রায় ৩২ কিমি এবং তা জেলা সদরের বীপরিত অভিমুখে। সরকার এই সমস্যার কথা বোঝে না। পাশাপাশি নাথুয়ায় আমরা দীর্ঘদিন জলঢাকা ও ডায়না নদীর সংযোগস্থলে সেতুর দাবি জানিয়ে আসলেও সরকার কর্ণপাত করছে না। আমাদের এই দুই দাবি পূরণ না হলে বাধ্য হয়ে ভোট বয়কটের পথে হাটতে হবে আমদের।’

দুরামারির বাসিন্দা প্রধান চন্দ্র রায়,  ঝুনু সরকার প্রমুখেরা বলেন, ‘ ভোট আসলেই শুধু আমাদের প্রয়োজন হয় কিন্তু ভোট পার হলেই এই কৃষি বলয়ে মানুষের আবেগকে পাত্তা দেওয়া হয় না। তাঁদের কথায়, যেহেতু ব্লক অফিসে সবচেয়ে বেশি কাজ কৃষিজীবি মানুষের সেক্ষেত্রে কৃষি বলয়ের প্রানকেন্দ্র গয়েরকাটায় ব্লক অফিস স্থাপন করতে হবে। অন্যথায় আমরা আমরণ অনশন ও ভোট বয়কট করব।’