ভোটের ভীতি কমাতে প্রচারে জোর চা বাগানে

58

ধূপগুড়ি: রাজনৈতিক প্রচারের আড়ালেই চা বাগান থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে ভোটের ভীতি কমাতে প্রচার সারছে নির্বাচন কমিশন। জলপাইগুড়ি জেলার প্রতিটি বিধানসভা এলাকার প্রত্যন্ত এলাকাগুলি বিশেষ করে চা বাগানগুলিতে প্রচার জোর দেওয়া হয়েছে।

জানা গিয়েছে, ২০১৬ সালের বিধানসভা ও ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে যে সমস্ত এলাকায় ৮৫ শতাংশের নীচে ভোট পড়েছে সেই এলাকা গুলিতেই প্রচার চালানো হচ্ছে। মূলত সমস্ত ভোটারদের ভোট দিতে আসার জন্যে উৎসাহ জোগাতে এবং ভোটের ভীতি কমাতেই নির্বাচন কমিশন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে ভোটিং মেশিন অর্থাৎ ইভিএম, ভিভিপ্যাট নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় যাওয়া হচ্ছে। এমনকি ভোটারদের আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি এবং প্রচারের লক্ষ্যে চারটি পথ নাটিকাও তৈরি করা হয়েছে। সেগুলির মাধ্যমেও প্রচার করা হচ্ছে। নির্বাচনের কাজের সঙ্গে যুক্তরা ভোটারদের কাছে গিয়ে ভোট গ্রহণের দিনক্ষণও জানিয়ে আসছেন। জলপাইগুড়ি জেলাশাসক তথা জেলা নির্বাচনি আধিকারিক মৌমিতা গোদারা বসু জানান, কিছু চা বাগান ও ফরেস্ট ভিলেজ এলাকায় কম ভোট পড়েছিল। সেগুলিকে বাছাই করে প্রচার চালানো হচ্ছে। প্রয়োজনে সেক্টর অফিসার, অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্টর বা রিটার্নিং অফিসারও মানুষের বাড়িতে পৌঁছে ভোট দিতে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে আসতে বলা হচ্ছে। এর জন্য ভোটারদের আত্মবিশ্বাস বাড়ানো হচ্ছে।

- Advertisement -