রায়গঞ্জ, ২৪ ফেব্রুয়ারিঃ মোবাইল ফোন নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্র ঢুকে সোমবার হোয়াটসঅ্যাপে প্রশ্নপত্র ফাঁস করার অভিযোগে উত্তর দিনাজপুর জেলার তিন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ বাতিল করল। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নিযুক্ত উত্তর দিনাজপুরের মাধ্যমিক পরীক্ষার কনভেনার ব্যোমকেশ বর্মন জানিয়েছেন, তিন পরীক্ষার্থী প্রশ্নপত্র ফাঁস করেছিল। সেই কারণে তাদের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। পাশাপাশি, অভিযুক্তরা বাকি তিনটি পরীক্ষাও দিতে পারবে না বলে তিনি জানান। এদিন অঙ্ক পরীক্ষার শেষ মুহূর্তে ওই তিন ছাত্র ধরা পড়ে। অভিযুক্তদের রাঘবপুর হাই স্কুলের এক ছাত্রের পরীক্ষাকেন্দ্র ছিল করণদিঘি হাই স্কুল। অপরদিকে, দুয়ারিন হাই স্কুলের দুই ছাত্রের পরীক্ষাকেন্দ্র ছিল তিতপুকুর হাই স্কুল। করণদিঘি হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক নবনীল দাস জানান, পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢোকার সময় পরীক্ষার্থীদের তল্লাশি করে ঢোকানো হয়েছিল। কেউ যদি জুতোর মধ্যে করে মোবাইল নিয়ে যায়, তাহলে তাঁদের কী করার আছে। অন্যদিকে, তিতপুকুর হাই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ভক্ত দাস অবশ্য ওই পরীক্ষাকেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সাথে কথা না বলে, কোনও মন্তব্য করবেন না বলে জানান। দুয়ারিন হাই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক উত্তম সরকারও এবিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।