প্রার্থী রাজেশ লাকড়াকে বহিরাগত তকমা দিলেন খোদ তৃণমূলীরাই

149

বীরপাড়া: বহিরাগত ইস্যুতে চাপা ক্ষোভ ছিলই। শুক্রবার প্রার্থীপদ ঘোষণার পরপরই মাদারিহাট বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের কর্মীদের ক্ষোভ প্রকাশ্যে এল। প্রসঙ্গত, আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে মনোনীত হয়েছেন জলপাইগুড়ি জেলার বানারহাটের লক্ষ্মীপাড়া চা বাগানের বাসিন্দা রাজেশ লাকড়া ওরফে টাইগার। প্রার্থীপদ ঘোষণার পরপরই মাদারিহাট বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের কর্মীদের ক্ষোভের ধিকিধিকি  আগুনে যেন ঘি পড়ে। টেলিভিশন চ্যানেলে প্রার্থীর নাম শোনার পরই বিক্ষুব্ধদের কেউ কেউ  ‘অন্যরকম চিন্তাভাবনা’  এমনকি আলাদা প্রার্থী দেওয়ার কথা বলতেও পিছপা হলেন না। কেউ আবার জানালেন, তৃণমূলকে নিজের ভোট দিলেও নির্বাচনের প্রচারে  কোনোভাবেই অংশ নেবেন না।

শুক্রবার সকালে রাজেশ লাকড়াকে  প্রার্থী হিসেবে  তাঁরা  মেনে নিতে তাদের আপত্তির কথা জানিয়ে  দলের মাদারিহাট বীরপাড়া ব্লক কমিটির সভাপতি সঞ্জয় লামাকে  স্মারকলিপি দেন মাদারিহাট ব্লকের  বেশ কয়েকটি চা বাগান এলাকার বেশ কয়েকটি চা বাগানের  বাসিন্দা তৃণমূলের কর্মীরা। তেমন হলে তাঁরা ভোট বয়কটও করতে পারেন বলে জানান।  এদিন তাঁরা বীরপাড়ার সারনা এসটি ক্লাব ময়দানে বৈঠকও করেন। এর কিছুক্ষণ পরই  টিভিতে রাজেশের  নাম শুনে ক্ষোভে ফেটে পড়েন তাঁরা। এদের মধ্যে অজিত নায়েক বলেন,  ‘আমাদের মতামতের যদি কোন গুরুত্ব না থাকে তবে দলীয় প্রার্থীকে জেতাতে আমরা লড়াই করব কেন?’ তিনি নিজে যুব তৃণমূলের একজন সদস্য বলে জানান অজিতবাবু।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে বীরপাড়া চা বাগানের বাসিন্দা যুব তৃণমূলের এক পদাধিকারীকে প্রার্থী করার দাবি তুলেছিলেন তাঁরা। অজিত শুক্রবার জানান,  তাদের মতামত কে অগ্রাহ্য করেই বহিরাগত ব্যক্তিকে প্রার্থীপদ দেওয়া হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই তারা অন্যরকম চিন্তাভাবনা শুরু করেছেন। এমনকি তেমন হলে তারা নির্দল  প্রার্থীও দাঁড় করাতে পারেন বলে জানান। চা শ্রমিকদের সংগঠন তরাই ডুয়ার্স প্ল্যানটেশন ওয়ার্কাস ইউনিয়নের ডিমডিমা ইউনিটের সম্পাদক বীরেন্দ্র সিং বলেন, ‘বোঝা গেল আমাদের মতামতের কোনো গুরুত্বই নেই। তাই আমি নির্বাচনী প্রচারে অংশই নেব না। কেবলমাত্র ভোটের দিন গিয়ে ভোট দেব।’ তৃণমূলের আলিপুরদুয়ার জেলা কমিটির সহসভাপতি পঙ্কজ দাস বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তিনি যোগ্য মনে করেছেন বলেই রাজেশবাবুকে প্রার্থী করেছেন।’