গোরু পাচার কাণ্ডে এনামুল ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতার ডেরায় সিবিআইয়ের তল্লাশি

141

বসিরহাট: গোরু পাচার কাণ্ডে এনামুল হকের ডান হাত বলে পরিচিত তৃণমূল নেতা বারিক বিশ্বাসের বসিরহাটের বাড়ি ও অপর তিনটি ডেরায় বুধবার তল্লাশি চালাল সিবিআই। স্থানীয় সূত্রে খবর, ২০০৭ সালে দৈনিক ৫০ টাকা মজুরিতে গাড়ি ধোঁয়ার কাজ করতেন বারিক বিশ্বাস। পরে সে গোরুর ব্যবসায় নামে। ২০০৯ সালে সে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেয়। এরপর থেকেই তাঁর অবস্থার পরিবর্তন হতে থাকে। বসিরহাটের সংগ্রামপুরে সে প্রাসাদোপম বাড়ি তৈরি করে। গোরুর ব্যবসা শুরু করার কিছুদিনের মধ্যেই বারিক বিশ্বাস গোরু পাচার চক্রের মূল পাণ্ডা এনামুল হকের সঙ্গে হাত মেলায়। এনামুলের বিভিন্ন ডেরায় তল্লাশি চালিয়ে এবং তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই বারিক বিশ্বাসের নাম জানতে পারে। এরপর এদিন সকাল থেকেই বারিকের বাড়ি ও অন্য ডেরায় তল্লাশি অভিযান শুরু হয়।

গোরু পাচার কাণ্ডের অন্যতম পাণ্ডা এনামুল হককে আগেই গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই। বেশ কিছুদিন জেল হেপাজতে কাটিয়ে বর্তমানে এনামুল জামিনে রয়েছে। গোরু পাচার মামলায় সতীশ কুমার নামে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর এক কমান্ডান্টকে গ্রেপ্তার করেছিল সিবিআই। বর্তমানে তিনিও জামিনে রয়েছেন। অন্যদিকে, পরপর তিনবার নোটিশ পাঠানো সত্ত্বেও কয়লা ও গোরু পাচার কাণ্ডের অন্যতম মধ্যমণি, তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ বিনয় মিশ্র সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দেননি। তাঁর বাড়ি ও দপ্তরে ইতিমধ্যেই তল্লাশি চালিয়েছে সিবিআই। সেই সূত্রেই জানা গিয়েছে, বিনয় মিশ্রের কাছে ভারত ছাড়াও আরও দুটি দেশের পাসপোর্ট রয়েছে। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে সে দুবাইয়ে পাড়ি দিয়েছিল। প্রাথমিকভাবে সিবিআইয়ের ধারণা সে দুবাইতে বা বাংলাদেশে আত্মগোপন করে থাকতে পারে। ইতিপূর্বে তার বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি করা হয়েছিল। এবার তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হল।

- Advertisement -