রাজ্যে বিধানসভা ভোটের আগে চিটফান্ড মামলা নিয়ে তৎপর সিবিআই

353

নয়াদিল্লি : আগামী বছর পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা ভোট। তার আগে চিটফান্ড কেলেঙ্কারির মামলাগুলি নিয়ে নতুন করে সক্রিয়তা দেখাতে শুরু করেছে সিবিআই। জানা গিয়েছে, শীঘ্রই চিটফান্ড কেলেঙ্কারি সংক্রান্ত মোট ১০২টি মামলা রুজু করবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দল। সিবিআই ডিরেক্টর ঋষিকুমার শুক্লা ইতিমধ্যে তদন্তকারী সংস্থার কলকাতা ডিভিশনকে ওই মামলাগুলি রুজু করার ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছেন। সূত্রের খবর, চলতি বছর শেষ হওয়ার আগেই ওই মামলাগুলি রুজু করা হয়ে যাবে। গত দুসপ্তাহে চিটফান্ড সংক্রান্ত ৬টি মামলায় মোট ২৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে একটি সংস্থার বিরুদ্ধেও। অর্থনৈতিক অপরাধ শাখা, দুর্নীতি দমন শাখা এবং অর্থনৈতিক অপরাধ শাখার ৪ নম্বর ইউনিট- সিবিআইয়ের এই তিনটি বিভাগকে মামলাগুলির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ২০১১ সালে রাজ্যে পালাবদলের মাত্র ২ বছরের মধ্যে সুনামির মতো আছড়ে পড়েছিল চিটফান্ড কেলেঙ্কারির অভিযোগ। নাম জড়ায় শাসক তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিক রথী-মহারথীরও। বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। চিটফান্ড কেলেঙ্কারির অভিযোগকে সামনে রেখে তৃণমূলের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে মরিয়া হয়ে ওঠে বিজেপি এবং অন্য বিরোধী দলগুলি। কিন্তু ২০১৪ সালে তদন্ত শুরুর পর থেকে সারদা, রোজভ্যালি মামলার তদন্ত সেভাবে এগোয়নি বলে বারবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস ও বামফ্রন্ট। সামনে আনা হয়েছে তৃণমূল-বিজেপি সেটিং তত্ত্ব। বিজেপি ভালোভাবেই জানে, রাজ্যে চিটফান্ড কেলেঙ্কারি এখনও পর্যন্ত তৃণমূলের সততার প্রতীকে সবথেকে বড় দাগ। যা মুছে ফেলা কঠিন। বিজেপি আসন্ন ভোটেও তৃণমূলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অস্ত্র হিসেবে চিটফান্ড কেলেঙ্কারিকে কাজে লাগাতে মরিয়া। সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, শুধু শাসকদলের কেষ্টবিষ্টুরাই নন, তদন্তকারীদের আতশকাচের তলায় রয়েছে পুলিশের ভূমিকাও। পুলিশ যে অভিযোগগুলি নিয়ে যথাযথভাবে তদন্ত করেনি, সেগুলি আলাদাভাবে তদন্ত করবে সিবিআই। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সিবিআইয়ের অন্যতম শীর্ষকর্তা পঙ্কজ শ্রীবাস্তব সংস্থার সদর দপ্তরে জানিয়েছিলেন, ২০১৪-র ৯ মে পর্যন্ত সিআইডি মোট ৫৭৮টি এফআইআর সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছিল। ওই এফআইআরগুলি সারদা ছাড়া অন্যান্য চিটফান্ডের কেলেঙ্কারি সংক্রান্ত। সারদা মামলায় ৩৯৩টি এফআইআর হয়েছিল। এর মধ্যে মাত্র ৭৮টির তদন্ত হয়েছিল। বাকিগুলির তদন্ত একটুও এগোয়নি। অভিযুক্ত ও সংস্থাগুলির নাম খতিয়ে দেখে ১০২টি মামলা রুজু করার কাজ শুরু করেছে সিবিআই। পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি ওডিশার মামলাগুলি নিয়ে এগোবে সিবিআই।