কেন্দ্র জানে না লকডাউনে কতজন পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে

418
প্রতীকী ছবি।

নয়াদিল্লি: করোনা কারণে দেশজুড়ে আচমকা জারি হওয়া লকডাউনে কতজন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে, সেই সংক্রান্ত কোনও পরিসংখ্যান নেই কেন্দ্র সরকারের কাছে। পরিয়াযী শ্রমিকের মৃত্যু নিয়ে হিসেব রাখাও হয়নি বলে সোমবার সংসদে জানাল কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রক। এদিন বাদল অধিবেশনের শুরুর দিনই পরিযায়ী শ্রমিক সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তরে এই কথা বলা হয়েছে। যদিও এক সংবাদ মাধ্যমের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, আচমকা জারি হওয়া লকডাউনে কেবল শ্রমিক ট্রেনেই যাত্রাকালীন ৮০ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

এদিন প্রশ্নের উত্তরে শ্রম মন্ত্রক জানিয়েছেন, পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু সংক্রান্ত কোনও পরিসংখ্যান তারা সংগ্রহ করেনি। তাই পরিয়াযী শ্রমিকের মৃত্যুর কারণে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। শুধু তাই নয়, কেন্দ্রীয় সরকার কী পরিযায়ীদের সমস্যা অনুধাবন করতে ব্যর্থ হয়েছিল? এই প্রশ্নেরও সরাসরি জবাব মেলেনি। তবে, শ্রম মন্ত্রক জানায়, লকডাউনে মোট ১.০৪ কোটি মানুষ ফিরেছেন বাড়ি। তাদের মধ্যে প্রায় ৬০ লক্ষ পরিযায়ী ফিরেছেন উত্তরপ্রদেশ, বিহার ও রাজস্থানে। ৪৬১১ টি বিশেষ শ্রমিক ট্রেন চালিয়েছে কেন্দ্র ও প্রায় ৬৩ লাখ মানুষ নিজেদের ভিঁটেতে আসেন এই ট্রেনে।

- Advertisement -

এদিন মন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গওয়ার বলেন, সবাই মিলে অর্থাৎ কেন্দ্র, রাজ্য, পৌর ও পঞ্চায়েত প্রশাসন, সরকারি ও বেসরকারি সংস্থারা মিলে করোনার বিরুদ্ধে লড়েছেন। লকডাউনে যারা বাড়ি ফিরেছেন তাদের কর্মসংস্থানের জন্য রাজ্য সরকারগুলিকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে পরিযায়ীরা যাতে সমস্ত কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সুযোগ পান সেই জন্য তাদের গতিবিধির ওপর নজর রাখতেও বলা হয়েছে। কিন্তু সব মিলিয়ে লকডাউনে আটকে পড়া কত শ্রমিক বলি হলেন, তার কোনও সামগ্রিক হিসাব নেই কেন্দ্রের কাছে।