দিল্লি, ২১ অগাস্টঃ কেরলের বন্যাকে গুরুতর প্রাকৃতিক বিপর্যয়(calamity of severe nature) বলে ঘোষণা কেন্দ্রের। গতকাল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘তীব্রতা ও বিশালতা দেখে কেরলের বন্যাকে গুরুতর প্রাকৃতিক বিপর্যয় বলা যায়।’ মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে, বন্যা পরিস্থিতির ওপর নজর দিয়ে কেরলের পরিস্থিতিকে গুরুতর প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘোষণা করা হচ্ছে।

কেন্দ্রের এই ঘোষণার ফলে কেরল সরকার বন্যা মোকাবিলায় আরও আর্থিক ও অন্যান্য সাহায্য পাবে। কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, বন্যা মোকাবিলায় কেরালা সরকারকে ৭০০ কোটি টাকা আর্থিক সাহায্যের প্রস্তাব দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি (UAE)।

ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে কেরালার বন্যা পরিস্থিতি। উন্নত হয়েছে মোবাইল নেটওয়ার্ক পরিসেবা। ইডুকি জেলায় অবশ্য সমস্যা এখনও রয়েছে।

এদিকে বন্যার জল কমতে শুরু করেছে। অভাব রয়েছে পরিষ্কার পানীয় জলের। জল কমতে শুরু করায় আশঙ্কা করা হচ্ছে মশার উপদ্রব বাড়ার। রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর ৩৭০০ মেডিকেল ক্যাম্প এবং ৬টি বিশেষ মেডিকেল টিমের ব্যবস্থা রেখেছে।