ভিলেন করোনা, বন্ধ শতবর্ষ প্রাচীন রথের মেলা

126

রায়গঞ্জ: কোভিডের ধাক্কায় দ্বিতীয়বারের জন্য বন্ধ হল রায়গঞ্জের দেবীতলার শতাধিক বছরের পুরোনো রথের মেলা। সংক্রমণ রুখতে রথযাত্রাকে কেন্দ্র করে জমায়েত ও মেলা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। শুক্রবার দুপুরে রায়গঞ্জের দেবীতলায় মন্দির প্রাঙ্গণে গিয়ে দেখা গেল ঐত্যিহ্যবাহী কাঠের রথটি জঙ্গলের মধ্যে পড়ে রয়েছে। রথের রং থেকে সংস্কার কিছুই হয়নি।

রায়গঞ্জ ব্লক ও শহর মিলিয়ে প্রতিবছর ১০ থেকে ১২টি বড় রথ বের হয়। পাশাপাশি রথযাত্রাকে কেন্দ্র করে দেবিনগর, দেবীতলা, সুভাষগঞ্জ ও নেতাজিপল্লী এলাকায় রথের দিন মেলা বসে। রথের দড়ি টানতে হাজার হাজার মানুষের জমায়েত হয়। রায়গঞ্জের দেবীতলায় প্রায় শতাধিক বছর ধরে রথযাত্রাকে কেন্দ্র করে বড় মেলা বসে। রথের প্রথম দিন ও উলটা রথে মেলা হয় এখানে। কয়েকশো ব্যবসায়ী বিভিন্ন সামগ্রী  নিয়ে মেলায় দোকান দেন। জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রাকে দেখার পাশাপাশি রথের দড়ি টানার জন্য প্রচুর মানুষের জমায়েত হয় মন্দির প্রাঙ্গণে। ভক্তদের প্রচুর প্রণামী জমা পড়ে। প্রণামীর টাকায় সারাবছর মন্দিরের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করতে পারেন মন্দির কমিটির সদস্যরা।

- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দা শিক্ষক তপু সাহা বলেন, ‘এখানকার রথের মেলার আলাদা ঐতিহ্য আছে। তাই বহু দূর থেকে সাধারণ মানুষ এখানে আসেন। তবে সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে প্রশাসনের নির্দেশ মেনে চলতে হবে।’ স্থানীয় জিলেপি ব্যবসায়ী তারক নাথ দত্ত বলেন, ‘প্রতি বছর রথের মেলায় এত মানুষের ভিড় হয় যে আমরা অনেক ক্রেতা জিলেপি কিনতে না ফিরে যান। ভালো টাকার বিক্রি-বাট্টা হয়, কিন্তু গতবছরের ন্যায় এবছরও মেলা না হওয়ায় বড়সড় ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কারণ এই মেলার উপর আমরা ভরসা করে থাকি।’

রথযাত্রা কমিটির সম্পাদক মুরারি প্রামাণিক বলেন, ‘এখানকার রথ প্রায় শতাধিক বছরের পুরোনো। কোভিডের কারণে গতবছর রথের চাকা ঘুরেনি, মেলা বসেনি। এবছরও প্রশাসন সমস্ত জমায়েতের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তাই এবারও ৫০ জনের উপস্থিতিতে রথের পুজো সারা হবে।’

প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন চিকিৎসক এবং বিশেষজ্ঞরা। চিকিৎসক অসিত চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘রথের মেলা হলে সেখান থেকে সংক্রমণ গোটা শহর জুড়ে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। কারণ মেলায় আসা প্রত্যেকটি মানুষ হিসেবে তখন সুপার স্প্রেডার হিসেবে কাজ করতেন। তাছাড়াও দেশের বিভিন্ন জায়গায় করোনার ডেলটা প্লাস ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। যা অতি সংক্রামক। ফলে এই সিদ্ধান্ত সময়ের বিচারে অত্যন্ত কার্যকরী।’