চিনা গুপ্তচরকে আদালতে পেশ, কী বলল আদালত?

309
ফাইল ছবি

মালদা: বাংলাদেশ থেকে ভারতে ঢুকতে গিয়ে বিএসএফের হাতে ধরা পড়েছিল এক চিনা নাগরিক হান জুনেই। ১০ জুন হানকে গ্রেপ্তার করেছিল বিএসএফ। এরপর শুরু হয় জিজ্ঞাসাবাদ। ধীরে ধীরে সামনে আসতে থাকে একের পর এক রোমহর্ষক তথ্য। জেরায় উঠে আসে তার চিনা গুপ্তচর হওয়ার প্রমাণ। তাকে জেরা করতে মালদায় পৌঁছায় এনআইএর বিশেষ দল। শনিবার তাকে মালদা জেলা আদালতে পেশ করল মালদার গোলাপগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশ।

বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছিল, ওই হান লখনউর এটিএসের ওয়ান্টেড লিস্টে ছিল। দীর্ঘদিন ধরে ভারতের তথ্য সে তার এক হোটেল ব্যবসায়ী বন্ধুর কাছে থেকে পেতো। সেই বন্ধুকে দিল্লি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এরপর এই হানের খোঁজ শুরু করেছিল এটিএস। এরপর ১০ জুন সুলতানপুরে অবৈধ ভাবে বাংলাদেশ থেকে ভারতে ঢুকতে গিয়ে ধরা পড়ে সে। তাকে শনিবার আদালতে পেশ করা হয়। তার হয়ে এদিন আদালতে সাওয়াল করেছেন সরকারি আইনজীবী জ্ঞানেন্দ্র দেওয়ান। এদিন পুলিশি নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছিল গোটা আদালত চত্বর। ওই চিনা নাগরিককে ৬ দিনের পুলিশ হেপাজত দিয়েছে মালদা জেলা আদালত।

- Advertisement -