১৫ দিনের মধ্যে ভোলবদল জিতেন্দ্র তিওয়ারির

279

আসানসোল, ২ জানুয়ারিঃ মাত্র ১৫ দিনের মধ্যেই একবারে ভোলবদল আসানসোল পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারির। সুর বদলেও আক্রমণ করলেন বিজেপিকে। ২০২০ সালের ১৭ ডিসেম্বর ঠিক যে কারণ দেখিয়ে আসানসোল পুরনিগমের পুর প্রশাসক পদ ছেড়েছিলেন তিনি, এদিন তাঁর মুখে বিজেপির বিরুদ্ধেই সেই পুরানো আক্রমনাত্মক সুর। রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমকে চিঠি লিখে অভিযোগ আকারে বলেছিলেন কেন্দ্র সরকারের পাঠানো সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট ও স্মার্ট সিটির টাকা রাজ্য নিতে না দেওয়ায় আসানসোল পুর এলাকার উন্নয়ন ব্যহত হয়েছে। পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী পালটা সমালোচনা করায় দু’দিনের মধ্যে ক্ষোভে তিনি পুরপ্রশাসকের পদ থেকে ইস্তফা দেন। এরপর ঠিক ১৬ দিনের মাথায় এদিন একেবারে ভিন্ন সুর সেই জিতেন্দ্র তিওয়ারির গলায়।

শনিবার কুলটির পুর এলাকার সীতারামপুরের টেগোর গ্রাউন্ডে জিতেন্দ্র তিওয়ারির অন্যতম ঘনিষ্ঠ আসানসোল পুরনিগমের প্রাক্তন কাউন্সিলর তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা নেতা অমিত তুলসিয়ানের উদ্যোগে কম্বল বিতরনের এক অনুষ্ঠান হয়। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, বিজেপির ১৮ জন সাংসদ রাজ্যের জন্য কিছুই করেননি। তাঁরা কেবল মনিষীদের বিরুদ্ধে খারাপ শব্দ ব্যবহার করে চলেছেন। যা এক প্রকার বাংলার মানুষদের অপমান করার সামিল। অন্যদিকে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় একের পর এক প্রকল্পের মাধ্যমে জনহিতকর কাজ করে চলেছেন। তাই সাধারণ মানুষের স্বার্থে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের হাত শক্ত করার আহ্বান জানান তিনি। এই প্রসঙ্গে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বিতর্কিত জিনিস নিয়ে যত কথা বলা হবে ততই বিতর্ক বাড়বে। আজ যেটা বলছি সেটাই আজকের কথা। অতীত অতীতেই থাক। বর্তমানকে নিয়ে বাঁচতে চাই। গোটা ঘটনা ও জিতেন্দ্র তিওয়ারির মন্তব্য নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিজেপি।

- Advertisement -

কুলটির বিজেপি নেতা অমিত গরাই বলেন, পুরমন্ত্রীকে যে চিঠি তিনি লিখেছিলেন সেটা জিতেন্দ্র তিওয়ারি স্বজ্ঞানে নিজে লিখেছেন বলে জানি। সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় আসানসোলের জন্য অনেক কাজ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তৃনমূল কংগ্রেসের সরকার তাকে কাজ করতে দেয়নি। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের গুড বুকে নাম তোলার জন্য সম্ভবতঃ তিনি এখন এইসব কথা বলছেন। এদিনের অনুষ্ঠানে পান্ডবেশ্বরের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি থাকলেও দেখা যায়নি কুলটির বিধায়ক উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়কে।

এই প্রসঙ্গে অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা প্রাক্তন কাউন্সিলর অমিত তুলসিয়ান বলেন, মেয়রের সাথে ৫ বছর কাজ করতে করতে আমি জিতেন্দ্র তিওয়ারির ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। আমার সমস্ত অনুষ্ঠানে জিতেন্দ্র তেওয়ারি উপস্থিত থাকেন। আমি তৃণমূল কংগ্রেসের সৈনিক। তাই কুলটি বিধানসভায় এবারের নির্বাচনে উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়কে জয়ী করতে অতীতের মতো আবার ঝাঁপিয়ে পড়ব। এদিনের অনুষ্ঠানে ৩ হাজারের বেশি মানুষের হাতে কম্বল তুলে দেওয়া হয়েছে। এদিন আসানসোলে শ্রমিক মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জিতেন্দ্র তিওয়ারি যাননি। যদিও, সরকারি এই অনুষ্ঠানের কার্ডে পান্ডবেশ্বরের বিধায়ক হিসাবে তাঁর নাম ছিল। মঞ্চে তাঁর নাম লেখা বোর্ডও দেখা গিয়েছে।