প্রসূতি মৃত্যুর জেরে উত্তেজনা হাসপাতালে

121

মুর্শিদাবাদ: এক প্রসূতির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে জঙ্গিপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল চত্বরে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, সুতি থানার হারুয়ার বাসিন্দা মিনারা বিবি (৩০) সোমবার সকালে প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে জঙ্গিপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি হন। কিছুক্ষণ চিকিৎসার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই মহিলার বাড়ির লোকেদের জানান, মিনারার অবস্থা ভালো নয় এবং তাঁকে দ্রুত রক্ত দিতে হবে। যদিও সূত্রের খবর, চিকিৎসক বলার পরও মিনারার পরিবার প্রথম চার ঘণ্টা কোনও রক্ত জোগাড় করতে পারেনি। হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় সেখানে কোনও রক্ত নেই। এরপর বিকেল নাগাদ মিনারার আত্মীয়রা এক ইউনিট রক্ত জোগাড় করেন।

মিনারা বিবির এক আত্মীয় জানান, রক্ত দেওয়ার পর রোগীর অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলেও রাত ১টা থেকে তাঁর প্রসব যন্ত্রণা বাড়তে থাকে। সেই সময় ওয়ার্ডের নার্সদের বারবার বলা হলেও কোনও চিকিৎসক মিনারাকে দেখতে আসেননি বলে অভিযোগ। পরে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালের আগে কোনও চিকিৎসক আসতে পারবেন না। মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে ফের রোগীদের অবস্থা খারাপ হতে থাকে। কিন্তু তখনও কোনও চিকিৎসক তাঁকে দেখতে আসেননি বলে অভিযোগ। হাসপাতালের ওয়ার্ডে একপ্রকার বিনা চিকিৎসাতেই মৃত্যু হয় মিনারার।

- Advertisement -

এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে হাসপাতাল চত্বরে। মৃতার আত্মীয়-পরিজনরা হাসপাতাল চত্বরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় রঘুনাথগঞ্জ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসে।

জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডাঃ সায়ান দাস বলেন, ‘এক প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ আমরা পেয়েছি। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। যদি হাসপাতালের চিকিৎসক বা কোনও স্বাস্থ্যকর্মীর গাফিলতিতে এই ঘটনা ঘটে তাহলে আমরা তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’