মৃত্যু হলেও দেহ অমিল, হতবাক পরিবার

128

কলকাতা: করোনায় মৃত্যু হলেও দেহ না মেলায় উত্তজনা ছড়ালো কলকাতার লেকটাউনের একটি নার্সিংহোমে। জানা গিয়েছে, গত ১২ মে করোনায় আক্রান্ত হয়ে লেকটাউনের ওই নার্সিংহোমে ভর্তি হয়েছিলেন বেলেঘাটার শংকর গুছাইত (৫২) নামে এক ব্যক্তি। সোমবার রাতে ওই নার্সিংহোমে মারা যান শংকরবাবু। মঙ্গলবার সকালে নার্সিংহোমের তরফে শংকরবাবুর দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তবে সেই দেহটি দেখেই হতচকিত হয়ে যান পরিবারের সদস্যরা। দেহটি শংকরবাবুর নয় বলে জানান তাঁরা। তড়িঘড়ি বিষয়টি তাঁরা নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষকে জানান। এরপর নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ তাঁদের মর্গে নিয়ে গিয়ে দেহ শনাক্ত করার চেষ্টা করে। কিন্তু মর্গে শংকরবাবুর দেহ ছিল না বলেই দাবি করেন পরিবারের লোকেরা। ঘটনার ক্ষোভ উগরে দেন মৃতের পরিবারের লোকেরা। বিষয়টিকে ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে নার্সিংহোম চত্বরে। শুরু হয় বচসা। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি সামাল দেয়। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তবে এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চায়নি নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ।