কিশোরের মৃত্যুর গুজবকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত গাজোল

313

গাজোল: এক কিশোরের মৃত্যুর গুজবকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত গাজোলের দেওতলা এলাকা। বাড়ি ভাঙচুর। বাইক, ভুটভুটি জ্বালিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। পরে গাজোল থানার পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

জানা গিয়েছে, গাজোল ব্লকের দেওতলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার কুলিপুকুর গ্রামের বাসিন্দা আজাদ হোসেন (১৯) প্রায়ই মদ্যপ অবস্থায় বাড়িতে এসে গন্ডগোল করত। মঙ্গলবার সে ফের গন্ডগোল শুরু করেছিল। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে পরিবারের এক বৃদ্ধা প্রতিবেশীদের সাহায্য চায়। সেই সময় মালেক, কাটু সহ বেশ কয়েকজন প্রতিবেশী এগিয়ে আসেন। কিন্তু তাঁদের ওপর হাঁসুয়া নিয়ে হামলা চালায় আজাদ। এরপরই ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁরা আজাদকে বেধড়ক মারধর করেন। মারের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়ে আজাদ। এরপরই তাকে তড়িঘড়ি নিয়ে আসা হয় গাজোল গ্রামীণ হাসপাতালে। কিন্তু আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করা হয়। তবে সেখান থেকে আজাদকে মালদার একটি নার্সিংহোমে ভর্তি করান পরিবারের লোকেরা।

- Advertisement -

এরপর রাতের দিকে রটে যায় মারা গিয়েছে আজাদ। এরপরই তার পরিবারের লোক সহ গ্রামবাসীরা চড়াও হয় মালেক এবং কাটুর পরিবারের ওপর। তাঁদের ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয়। অবস্থা বেগতিক দেখে তাঁরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। এরপর গ্রামবাসীরা তাঁদের ভুটভুটি এবং বাইক ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়কে নিয়ে গিয়ে তাতে আগুন ধরিয়ে দেন। খবর পেয়ে গাজোল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

ঘটনার পর খোঁজখবর নিয়ে জানা যায়, আজাদ মারা যায়নি। তবে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। যদিও পরে এই বিষয় নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে আজাদের পরিবার। গ্রামবাসীরাও আর তেমন ভাবে কিছু বলতে চাননি। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে গাজোল থানার পুলিশ।