দিলীপের সভায় ধস্তাধস্তি, চরম বিশৃঙ্খলা রায়গঞ্জে

338

রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সামনেই তৈরি হল চরম বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি। রবিবার জেলার কার্যকর্তা, বিধায়ক, মোর্চার সভাপতি, জেলা কমিটির সদস্যদের পাশাপাশি তিন প্রাক্তন জেলা সভাপতিকে নিয়ে সভার ডাক দেওয়া হয়েছিল। এদিন সভার কাজ শুরু হতেই বিজেপির জেলা কমিটির দুই সদস্য বলরাম চক্রবর্তী ও সুখেন সরকার সভাস্থলে ঢুকে রাজ্য সভাপতির সামনে বর্তমান জেলা সভাপতি বাসুদেব সরকারের অবৈধ নিয়োগ এবং সভায় প্রাক্তন জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী সহ তাঁদের আমন্ত্রণ না জানানোর প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। অবিলম্বে জেলা সভাপতির অপসারণের দাবিও জানান তাঁরা। এতেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। রাজ্য সভাপতির সামনে নিজেদের মধ্যে শুরু হয়ে যায় ধস্তাধস্তি। শেষ পর্যন্ত নিরাপত্তাকর্মীরা দুজনকেই সভাস্থল থেকে ধাক্কা দিয়ে বের করে দেন।

এদিকে, এদিন সভার শুরুতে চরম বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় সভার কাজ শুরু হতে দেরি হয়ে যায়। রাজ্য সভাপতির সামনে এমন ঘটনা ঘটায় দুই কার্যকর্তার বিরুদ্ধে দলীয় শৃখলা ভঙ্গের অভিযোগ এনেছেন জেলা সভাপতি। প্রাক্তন জেলা সভাপতি শংকর চক্রবর্তী বলেন, ‘দলীয় নির্দেশিকা অনুযায়ী জেলা কমিটির সবাই আজকের সভায় ডাক পাননি। বলরামবাবু ডাক না পেয়েও সভায় ঢুকে পড়েন। এতেই রাজ্য সভাপতির সামনে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়। নির্বাচনের প্রাক মুহূর্তে জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ীকে সরিয়ে দিয়ে বাসুদেব সরকারকে জেলা সভাপতি করে রাজ্য কমিটি। এটা কোনওভাবেই মেনে নেননি জেলার সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতৃত্ব। আজ তারই বহিঃপ্রকাশ ঘটে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

- Advertisement -