ছট পুজোয় সফল প্রশাসন, সাধুবাদ জানাচ্ছেন নাগরিকরা

115

কলকাতা: করোনা পরিস্থিতিতে এবার সংযত থেকেই সব পুজো হয়েছে। ছটপুজোতেও তার অন্যথা হয়নি। আদালতের নির্দেশ মেনেই পুজোর আয়োজন করা হয়েছে। নির্বিঘ্নে পুজো সম্পন্ন করতে প্রশাসনের তরফে একাধিক বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ভরা উৎসবের মরসুমে দুর্গাপুজো আর কালীপুজো হয়ে ছটপুজোতেও আমজনতার সেই সংযম যে অক্ষুণ্ণ তা বুঝিয়ে দিল কলকাতা। বলা যায় ছট পুজোয় সফল হয়েছে প্রশাসন।

আদালতের রায় মেনে শনিবার দুই জাতীয় সরোবরের পরিবেশ রক্ষায় কোনও অঘটন ঘটেনি। গঙ্গার ঘাটে দূরত্ববিধি পর্যাপ্তভাবে মানা না হলেও দল বেঁধে বাজি পুড়িয়ে ডিজে বাজিয়ে নদী পর্যন্ত যাওয়া থেকে বিরতই থেকেছেন পুণ্যার্থীরা। জয় হয়েছে নাগরিক সচেতনতা ও সদিচ্ছার। নাগরিকরা তাই সাধুবাদ জানিয়েছেন এই ত্যাগের সংস্কৃতিকে। এবছর নিষেধাজ্ঞার তালিকায় যোগ হয়েছিল বেলেঘাটার সুভাষ সরোবরও। সেখানেও পুলিশের আবেদনে সাড়া দিয়েই ফিরে গিয়েছেন পূণ্যার্থীরা। কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে রাখা হয়েছে রবীন্দ্র সরোবরকেও। খুশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। গঙ্গার ঘাটে ছটের অনুষ্ঠানে তিনি জানান, কোভিড পরিস্থিতি চলছে। তারই মধ্যে সাধারণ মানুষ দিশা দিয়েছেন। আগের পুজোগুলিতেও মানুষ সেভাবে উৎসবে শামিল হয়নি। নিজেদের ভালো চেয়েই আদালতের নির্দেশ মেনেছেন, পুলিশের আর্জি শুনেছেন নাগরিকরা। এদিন দুপুর ৩টার পর থেকে দুই সরোবরে প্রবেশ সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা উঠবে।

- Advertisement -