মুখ্যমন্ত্রী ভয় পেয়ে নন্দীগ্রামে যাননি: বাবুল সুপ্রিয়

163

আসানসোল: মানুষদের কাছে প্রত্যাখ্যাত হবেন। তাই ভয় পেয়েই নন্দীগ্রামে যাননি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সদ্য তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দান করা শুভেন্দু অধিকারীর পাশে দাঁড়িয়ে বছরের শেষদিনের দুপুরে এইভাবেই মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করলেন আসানসোলের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাবুল সুপ্রিয় সস্ত্রীক আসানসোল স্টেশন রোডের ১৩ নং মোড়ে আরপিএফের পরিচালিত বাবা বাসুকিনাথ সেবা সমিতির নর নারায়ণ সেবায় অংশ নেন। তাঁরা দুঃস্থ মানুষদের খাবার দেওয়ার পাশাপাশি তাদের হাতে মাস্ক ও শীতবস্ত্র তুলে দেন।

- Advertisement -

পরে বাবুল সুপ্রিয় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় বলেন, ‘নন্দীগ্রাম আন্দোলনের প্রধান মুখ ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তা সবাই জানেন। মমতা বন্দোপাধ্যায় সেটা ভাঙিয়ে রাজ্যে ক্ষমতায় এসেছেন। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে চলে আসায়, তার যে সেখানে গিয়ে কিছু হবে না, তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুঝে গিয়েছেন। তাই সেখানকার কোন একজনের কি শরীর খারাপ হয়েছে, তারজন্য তিনি সভা বাতিল করেদিলেন। এটা কোনদিন হয়? আসল কথা হল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভয় পেয়েছেন। আর এখানেই আমাদের ও শুভেন্দু অধিকারীর নৈতিক জয়।’

এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করে আরও বলেন, ‘রাজ্যে পুলিশ ও প্রশাসন হাতে রেখে তিনি বাংলায় ক্ষমতায় রয়েছেন। পুলিশ তার পাশ থেকে যদি সরে যায়, তাহলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় থাকতে পারবে না। অনেকটা এইরকম, দড়ি ধরে মারো টান, দিদি হবে খান খান। এখানে দিদির ভাই ও ভাইপোরা থানায় বসে মোবাইলে তোলাবাজি করে। কোন অপরাধ করলে এখানে কোনো দুষ্কৃতী গ্রেপ্তার হয় না। ২০২১ সালের পরে আমরা ক্ষমতায় এলে সবকিছুই হবে। কোন অপরাধী ছাড়া পাবে না।’