শিশুপুত্রকে পিটিয়ে খুন, অভিযুক্ত সৎ বাবা

246

সমীর দাস, হাসিমারা: পাঁচ বছর বয়সের ছেলেকে মিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠল সৎ বাবার বিরুদ্ধে। শুক্রবার সন্ধ‍্যায় এমন ঘটনার খবর প্রকাশ‍্যে আসতেই পড়তেই চাঞ্চল‍্য ছড়িয়ে পড়ে হাসিমারা পুলিশ ফাঁড়ির অধীন সাতালি চা বাগানে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাগানের গন্দ্রু লাইনের বাসিন্দা পুষা কাছুয়া (২৪) শুক্রবার দুপুরে নিজের ঘরে ডেকে এনে অংশ নামের ওই শিশুটিকে মারধর করে। শিশুটির কান্নার আওয়াজ যাতে বাইরে না যায় সেই কারনে সে ঘরে জোরে মিউজিক সিস্টেম চালু করে দেয়। শিশুটির মা সেসময় বাগানের কাজে গিয়েছিলেন। ঘটনাস্থলেই শিশুটির মৃত্যু হয়।

- Advertisement -

এদিকে শিশুটিকে মারধর করে ঘরের এক কোনায় ফেলে রেখে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় পুষা। কাজ থেকে ফিরে শিশুটির মা দেখে ছেলে ঘরের কোনায় পড়ে রয়েছে। প্রতিবেশীদের সাহায্যে বাগানের হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষনা করে।

পড়ে মৃত শিশুর মা প্রতিবেশীদের কাছ থেকে জানতে পাড়ে তার অনুপস্থিতিতে ছেলেকে ঘরে ডেকে নিয়ে গিয়েছিল পুষা। এর পড়েই ওই চা শ্রমিক পুলিশে পুষার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানায়। অভিযোগ পেয়ে হাসিমারা ফাঁড়ির পুলিশ এদিন রাতেই পুষাকে তার বাড়ি থেকে গ্ৰেপ্তার করে।

বাগান সূত্রের খবর, বিবাহ বিচ্ছিন্না শিশুটির মা ও বাগানের শ্রমিক লীলা কাছুয়া কিছু দিন আগে পুষাকে বিয়ে করেন। প্রথমে সব ঠিক থাকলেও স্ত্রীর প্রথম স্বামীর সন্তানকে পুষা কিছুতেই সহ‍্য করতে পারছিলনা। মদ‍্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে মাঝে মধ‍্যেই শিশুটিকে মারধর করত বলে অভিযোগ। মারধরে বাঁধা দিতে গেলে শিশুটির মাকেও অভিযুক্ত মারধোর করত বলে অভিযোগ। বৃহস্পতিবার রাতেও মা ও ছেলেকে অভিযুক্ত মারধোর করেছে বলে খবর।

হাসিমারা পুলিশ ফাঁড়ির ওসি প্রেমকুমার থামি বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত পুষাকে গ্ৰেপ্তার করা হয়েছে। কি কারনে ছেলেকে পিটিয়েছে তা জানতে অভিযুক্তকে জেরা করা হচ্ছে। শনিবার তাকে আলিপুরদুয়ার মহকুমা আদালতে তোলা হবে। মৃত শিশুর দেহ বাড়ি থেকেই উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার শিশুটির দেহ ময়নাতদন্তের জন‍্য আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে পাঠান হবে বলে জানিয়েছেন ওসি।