শিশুশিক্ষা কেন্দ্র বেহাল হয়ে পড়ে রইলেও নজর নেই ব্লক প্রশাসনের

282

দীপঙ্কর মিত্র, রায়গঞ্জ: উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসনিক কার্যালয়ের সামনে উদয়পুর পূর্ব শিশুশিক্ষা কেন্দ্রটি বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে। অথচ ব্লক প্রশাসনের কোনও নজর নেই।

উদয়পুর হাঁস খামার ঢুকতেই হাতের বাম দিকে শিশুশিক্ষা কেন্দ্রটি অবস্থিত। বেহাল শিশুশিক্ষা কেন্দ্রের শ্রেণিকক্ষের ও শৌচাগারের দরজা-জানালা ভেঙে পড়েছে। পানীয় জলের টিউবওয়েলটি প্রায় অকেজো। এলাকাবাসীর অভিযোগ, সন্ধ্যা হলেই যুবকরা সেখানে ভিড় করেন। চলে নেশার ঠেক। তারাই জানালা-দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকে। শিশুশিক্ষা কেন্দ্রটির দিকে কোনও নজর নেই গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে ব্লক প্রশাসনের। যদিও শিশুশিক্ষা কেন্দ্রের বেহাল অবস্থার জন্য শিশুশিক্ষা কেন্দ্রের সহায়িকাদের দায়ী করেছেন কমলাবাড়ি-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান প্রশান্ত দাস।

- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ জানান, শিশুশিক্ষা কেন্দ্রটি জেলা সদর দপ্তর কর্ণজোড়ার কাছে অবস্থিত হওয়া সত্ত্বেও কারও কোনও নজর নেই। দীর্ঘ লকডাউনে কেন্দ্রটি বন্ধ থাকার সুযোগ নিয়ে জানালা-দরজা ভেঙে ফেলছে দুষ্কৃতীরা। প্রতিদিন সন্ধ্যা হলেই দুষ্কৃতীদের তাণ্ডব শুরু হয়। সঙ্গে মদ ও জুয়ার আসর চলে। তাদের ভয়ে প্রতিবাদ করতে ভয় পান স্থানীয় বাসিন্দারা। এই শিশুশিক্ষা কেন্দ্রে প্রতিটি নির্বাচনে নির্বাচন কেন্দ্র হয়। তাই নির্বাচনের আগে প্রতিবার সংস্কার করতে হয় কেন্দ্রটি।

এদিনও শিশুশিক্ষা কেন্দ্রে ভোটার লিস্টের ভোটারদের নাম সংশোধন, সংযোজন এবং পরিমার্জনের কাজ চলে। এই কেন্দ্রটি ৩৫ নম্বর রায়গঞ্জ বিধানসভার ১৮৩ নম্বর বুথ। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, বেহাল পরিকাঠামোর জন্য এখানে পড়ুয়া নেই বললেই চলে। হাতে গোনা তিন-চারজন পড়ুয়া রয়েছে কিনা সন্দেহ। এজন্যও সহায়িকাদের দোষারোপ করা হচ্ছে। যদিও এই বিষয়ে সহায়িকাদের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এই বিষয়ে পঞ্চায়েত প্রধান প্রশান্ত দাস বলেন, ‘ওই শিশুশিক্ষা কেন্দ্রে তিন জন শিক্ষিকা রয়েছেন। বাড়ির পাশে হওয়া সত্ত্বেও কেউ কোনও খোঁজ রাখেন না। ছাত্র সংখ্যাও খুব কম। আমাদের দায়িত্ব তো ভোটের আগে। সেই সময় সংস্কার করে দিই আমরা। তবে শিশুশিক্ষা কেন্দ্রটির দেখাশোনার দায়িত্ব আমাদের মধ্যে পড়ে না, ব্লকের অধীনে পড়ে।’ রায়গঞ্জের ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক রাজু লামা বলেন, ‘শিশুশিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষিকারা আমাদের কাছে অভিযোগ জানালে এই বিষয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে থানায় জানানো হবে।’