রেলের বরাত চিনা সংস্থাকে, প্রতিবাদ কংগ্রেসের

175

নয়াদিল্লি: চিনের সঙ্গে সীমান্ত সংঘাতের মধ্যে ভারতীয় রেলের গুরুত্বপূর্ণ একটি করিডরের বরাত এক চিনা সংস্থার হাতে তুলে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। দিল্লি থেকে মিরাট ভায়া গাজিয়াবাদ ৮২ কিমির র‌্যাপিড রেল ট্রানজিট সিস্টেম করিডর (আরআরটিএসসি) বানাতে উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্র। এই রেল করিডরের তত্ত্বাবধানে আছে ন্যাশনাল ক্যাপিটাল রিজিয়ন ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন। এই রেল প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত ৫.৬ কিমি দূরত্বের নিউ অশোকনগর-সাহিবাবাদের ভূগর্ভস্থ ট্র‌্যাক নির্মাণের জন্য টেন্ডার ডাকা হলে দেশবিদেশের বিভিন্ন সংস্থা আবেদন পাঠায়। শেষপর্যন্ত মূল বাছাইপর্বে পাঁচটি সংস্থাকে পিছনে ফেলে প্রায় ১৫০০ কোটি টাকার এই ভূগর্ভস্থ ট্র‌্যাক নির্মাণের বরাত ছিনিয়ে নেয় চিনা নির্মাণ সংস্থা সাংহাই টানেল ইঞ্জিনিয়ারিং কর্পোরেশন। এই সিদ্ধান্ত নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র সমালোচনা করেছে কংগ্রেস।

কংগ্রেস নেতা কেসি বেনুগোপাল বলেন, লাদাখ সীমান্তে এখনও ২০ জন বীর ভারতীয় জওয়ানের রক্তের দাগ শুকোয়নি। এখনও লাদাখ সীমান্তের একাধিক অঞ্চলে ছাউনি গেড়ে বসে আছে চিনা লাল ফৌজ। মোদিজি প্রকাশ্যে চিনের নাম নিতেই ভয় পান। আর এখন ভারতীয় রেল করিডরের বরাত দেওয়া হচ্ছে চিনের সংস্থাকে। কেন্দ্রের এই ভূমিকা ন্যক্কারজনক। কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরযেওয়ালা বলেন, এটা প্রথম নয়, আগেও এই সংস্থাকে বরাত দিয়েছে কেন্দ্র। গত বছর জুন মাসে এই করিডরের জন্য টেন্ডার ডাকা হয় ও সাংহাই কর্পোরেশনই বরাত পেয়েছিল তখন। সেইসময়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছিল কংগ্রেস।

- Advertisement -