ভারতীয় ট্যাংকের সামনে টিকতে পারবে না চিনা ট্যাংক: সেনা কমান্ডার   

971

উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় ট্যাংকের সামনে টিকতে পারবে না চিনা ট্যাংক, এমনটাই জানিয়েছেন ভারতীয় সেনার এক কমান্ডার। ওই ট্যাংক কমান্ডার জানান, পূর্ব লাদাখের বরফে ঢাকা পার্বত্য অঞ্চলে যুদ্ধ হলে ভারতের টি৯০ ভীষ্ম ও টি৭২-র সঙ্গে লালফৌজের ট্যাংক পেরে উঠবে না। চিনা সেনার আক্রমণ প্রতিহত করতে ইতিমধ্যেই পূর্ব লাদাখে ভারতের তরফে প্রচুর সংখ্যক ট্যাংক মোতায়েন করা হয়েছে। রাশিয়ান প্রযুক্তিতে তৈরি টি৯০ লাদাখের প্রবল ঠান্ডায় টিকে থাকতে সক্ষম। প্যাংগং লেকের দক্ষিণে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর টি৯০ ট্যাংক মোতায়েন করেছে ভারত।

- Advertisement -

পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় সেই মে মাস থেকে উত্তেজনা চলছে। ১৫ জুন উত্তেজনা চরম আকার নেয়। সেদিন গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা শহিদ হন। তারপর থেকেই দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকেছে। বেশ কয়েকবার  সেনা, কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠক হয়েছে, কিন্তু কোনও সমাধান সূত্র বেরিয়ে আসেনি। আপাতত উত্তেজনা কমার কোনও লক্ষণ নেই। লাদাখে যেকোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছে ভারত। চিনের গতিবিধির ওপর নজর রেখে ভারতের তরফে পদক্ষেপ করা হচ্ছে।

এদিকে, কিছুদিন আগেই ভারতীয় বিমানবাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে ফ্রান্সের ড্যাসল্ট অ্যাভিয়েশেনের তৈরি পাঁচটি রাফায়েল। চিনের পঞ্চম প্রজন্মের স্টেল্থ প্রযুক্তির যুদ্ধবিমান চেংডু জে ২০-র মোকাবিলায় রাফায়েল লাদাখে প্রস্তুতি সেরেছে। লাদাখের আকাশে ভারতের মিরাজ ২০০০, সুখোই ৩০ এমকেআই, মিগ ২৯ উড়ছে। সীমান্তে নজরদারির জন্য চিনুক কার্গো হেলিকপ্টার, অ্যাপাচে অ্যাটাক হেলিকপ্টারও নামানো হয়েছে। এছাড়া ভারত ও চিনের তরফে সীমান্তের কাছাকাছি এলাকায় ট্যাংক, অ্যান্টি এয়ার ক্র্যাফট মিসাইলও মোতায়েন করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। অপরদিকে, চিনের পঞ্চম প্রজন্মের স্টেল্থ প্রযুক্তির চেংডু জে ২০ যুদ্ধবিমানও হুঙ্কার ছাড়ছে। লাদাখের খুব কাছেই চিনের জে-১১, জে ১৬ বিমান উড়ছে। সেগুলির মোকাবিলার জন্য লাদাখে প্রস্তুত রয়েছে ভারত।