নজির গড়ল চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা

662

আসানসোল: অসামান্য কর্মদক্ষতার পরিচয় দিয়ে চলতি আর্থিক বছরে (২০২০-২১ এর ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত) ২০০টি বৈদ্যুতিক রেল ইঞ্জিন তৈরি করে নজির গড়লেন চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার কর্মীরা। এটি দেশের অন্যতম পুরোনো রেল ইঞ্জিন কারখানা।

করোনা রুখতে লকডাউন জারি হওয়ায় গত এপ্রিল থেকে অগাস্ট পর্যন্ত ইঞ্জিন উৎপাদন হয়নি। আনলক ১ থেকে ফের ইঞ্জিন তৈরির কাজ শুরু হয় চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানায়। চলতি আর্থিক বছরে এই কারখানায় প্রথম ১৫০টি রেল ইঞ্জিন তৈরি করতে ১২৯ দিন সময় লেগেছিল। পরের ৫০টি ইঞ্জিন তৈরি করতে সময় লেগেছে মাত্র ৩০ দিন।

- Advertisement -

কারখানা কর্তৃপক্ষের আশা, গত দুটি আর্থিক বছর (২০১৮-১৯ ও ২০১৯-২০)-এ যথাক্রমে ৪০২ ও ৪৩১টি ইঞ্জিন তৈরি হয়েছে। সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়ে চলতি আর্থিক বছর শেষে এক নতুন রেকর্ড গড়বে চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা।