নয়াদিল্লি, ১৩ ডিসেম্বরঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে উত্তাল অসম। প্রতিবাদের ঝড় উঠছে উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে। একাধিক বনধ, মছিল, বিক্ষোভে কার্যত স্তব্ধ অসম। ইতিমধ্যেই পুলিশের গুলিতে তিন আন্দোলনকারীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

অন্যদিকে, অশান্তির আঁচ পৌঁছে গিয়েছে মেঘালয়, শিলংয়েও। মেঘালয়ে দু’দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইনটারনেট পরিসেবা। কার্ফিউ জারি করা হয়েছে সেখানে।

পাশাপাশি শিলংয়ের একাধিক জায়গায় কারফিউ জারি করা হয়েছে। বনধের জেরে শিলংয়ের পুলিশ বাজার এলাকায় সমস্ত দোকানপাট বন্ধ। শিলং থেকে ২৫০ কিলোমিটার দূরে উইলিয়ামনগরে মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা। চপার থেকে নেমে একজন স্বাধীনতা সংগ্রামীর মৃত্যু বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন তিনি। মেঘালয় পুলিশ টুইটবার্তায় কোনো ভুল তথ্য যেন কেউ না ছড়ায় তার পাশাপাশি মানুষকে শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার লোকসভায় ক্যাব পাশ হওয়ার পর থেকেই অসম, ত্রিপুরা সহ উত্তর-পূর্ব ভারতের অন্য রাজ্যগুলিতে প্রতিবাদ শুরু হয়। বুধবার রাজ্যসভাতেও বিলটি পাশ হয়। অসমের বিভিন্ন জায়গায় চলছে বিক্ষোভ। বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণে বন্ধ রাখা হয়েছে ইনটারনেট পরিসেবা। বন্ধ রয়েছে ট্রেন চলাচল।