মাছির উপদ্রবে ক্ষিপ্ত মমতা, সভার মাঝেই এ কি করলেন মুখ্যমন্ত্রী!

142
ছবি: সংগৃহীত।

উত্তরবঙ্গ সংবাদ নিউজ ডেস্ক: বৈঠক চলাকালে নবান্নের সভাঘরে হানা দিল কতিপয় মাছি। শুধু হানা দিয়েই ক্ষান্ত হয়নি বেআক্কেল মাছিগুলি। ভরা বৈঠকে সোজা মুখ্যমন্ত্রীর নাকের ডগায় হাজির। এরপরেই মুখ্যমন্ত্রীকে ঘিরে ভন-ভন করে উড়তে শুরু করল মাছির দল। শুরুতে বিষয়টিকে খুব একটা গুরুত্ব না দিলেও একটা সময় অতিষ্ট হয়ে ওঠেন তিনি। হাত নাড়িয়ে মাছিগুলি তাড়াতে চেষ্টা করলেও সফল হননি। এরপরেই বিরক্তি প্রকাশ করে আক্কেল জ্ঞানহীন মাছিগুলিকে শিক্ষা দিতে হাতে তুলে নেন জীবানুনাশক স্প্রে। যদিও মাছি তাড়াতে এবারও অবশ্য সক্ষম হননি।

সোমবার ইয়াস সাইক্লোন পরবর্তী পুনর্গঠন এবং বর্ষার প্রস্তুতি সংক্রান্ত পর্যালোচনা বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকে সরকারি আমলাদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিকরাও। যদিও তাঁদের কাউকেউ বিরক্ত করেনি মাছির দল। হানা দিয়েছিল এক্কেবারে মুখ্যমন্ত্রীকে লক্ষ্য করে। এতেই মেজাজ হারিয়ে ফেলেন মুখ্যমন্ত্রী। বক্তব্যে সাময়িক ইতি টেনে, ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করার পাশাপাশি জীবানুনাশক স্প্রে করে মাছি তাড়ানোর চেষ্টা শুরু করেন। দেখা যায়, বারকয় জীবানুনাশক স্প্রে করেন তিনি। একইসঙ্গে তাঁকে বলতে শোনা যায়, এখানে সবসময় মাছি ঘোরে।

- Advertisement -

বৈঠক শুরুর আগে সভাঘরে জীবানুনাশক কেন স্প্রে করা হয়নি তা নিয়েও এদিন প্রশ্ন তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সভা শুরুর আগে জীবানুনাশক স্প্রে করে কিছু সময় জানলা-দরজা বন্ধ রাখা উচিত।’