অনীতের বিরুদ্ধে অভিযোগের সুর চড়াতেই শান্তাকে ধমক মমতার

668

কার্সিয়াং: গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (জিটিএ) প্রশাসক বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অনীত থাপার বিরুদ্ধে পূর্ত দপ্তরের কাজ করার নামে ৩২ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগে সুর চড়াতেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে জোর ধমক খেলেন শান্তা ছেত্রী। মঙ্গলবার প্রশাসনিক সভার মঞ্চ থেকে শান্তা ছেত্রীকে উদ্দেশ্য করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তুমি ঝগড়া করবে না কিন্তু বলে দিলাম। ধর্না দেওয়া তোমার কাজ না। সাংসদ হয়েছো কাউন্সিলর ইলেকশনে হেরে গিয়ে, তারপর আবারা ধর্না দেব কি?

রাজ্য়সভার সাংসদ পদে থাকার পাশাপাশি তৃণমূলের পার্বত্য শাখার সভাপতির দায়িত্বেও রয়েছেন শান্তা ছেত্রী। দলীয় সূত্রে খবর, বিভিন্ন সময়ে তাঁর বিরুদ্ধে পাহাড় থেকে বিস্তর অভিযোগ জমা পড়েছে প্রদেশ নেতৃত্বের কাছে। যার মধ্যে রয়েছে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগও। সেসব অভিযোগ খতিয়ে দেখছে দল। এই পরিস্থিতিতে শান্তা ছেত্রীর দাবি, পাহাড়ে তাঁর ৩০ বছরের রাজনৈতিক জীবনে যথেষ্ট প্রভাব পড়ছে। সেক্ষেত্রে সমস্ত অভিযোগের উচ্চপর্যায়ের তদন্ত চেয়ে রবিবার দলের রাজ্য় সভাপতি সুব্রত বকসিকে চিঠি লেখেন তিনি। অন্য়দিকে, সোমবার কার্সিয়াংয়ে এক সাংবাদিক বৈঠকে (জিটিএ) প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ তোলেন। তাঁর কথায়, সেসময় রাজ্যের পূর্ত দপ্তরের মন্ত্রী ছিলেন অরূপ বিশ্বাস। শান্তা ছেত্রীর এহেন মন্তব্যে হইচই পড়ে যায় দলের অন্দরমহলে। এরপরই এদিন প্রকাশ্যে ধমক খেলেন।

- Advertisement -

এদিন শান্তা ছেত্রীকে উদ্দেশ্য করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তুমি একটু অরূপের সঙ্গে কথা বলে নেবে। দলের কিছু নিয়ম আছে তা মানতে হবে। আমি সবার মাসনে তোমায় বলতে চাই না। অনীতরা আমাদের বন্ধু দল এটা মাথায় রেখো। পাহাড়ে যে রাজনৈতিক দলই থাকুক, আমি তাদের সঙ্গে আমি ঝগড়া করতে যাব না। এটা মাথায় রেখো।’