সরকারি নির্দেশিকাকে অমান্য করে চলছে কোচিং, ক্ষোভ শিক্ষক মহলে

299

মানিকগঞ্জ: জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের মালকানিতে সরকারি নির্দেশিকা অমান্য করে একাধিক বেসরকারি স্কুলে চলছে পঠন পাঠন। যার ফলে নিয়ম মানা শিক্ষকদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে। আতঙ্ক ছড়িয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনার সময় থেকে সরকারি ও বেসরকারি সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও খারিজা বেরুবাড়ি-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের মালকানি বাজার সংলগ্ন একাধিক বেসরকারি নার্সারি স্কুলে সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করে শিক্ষার্থীদের শ্রেণীর পাঠদান কার্যক্রম চলছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, এনিয়ে অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক সহ অন্য প্রশাসনিক আধিকারিকদের জানানো হলেও রহস্যজনক কারণে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই বিদ্যালয়ের এক অভিভাবকের অভিযোগ, টিউশন দেওয়ার নাম করে স্কুলের ইউনিফর্ম ছাড়া বিদ্যালয়ের খুদে পড়ুয়াদের আসতে বাধ্য করা হচ্ছে।

একসঙ্গে একই শ্রেণির পড়ুয়াদের একত্রে ক্লাস নেওয়া হচ্ছে। বিদ্যালয়ের একজনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মিললে কি পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে তা ভেবে তিনি শিউরে উঠছেন। স্থানীয় বাসিন্দা ধ্রুব রায় বলেন, প্রকাশ্য দিবালকে সকল প্রকার নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ব্যক্তিগত মালিকানাধীন বিদ্যালয়ে জমজমাট ভাবে অবৈধ কোচিং বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে কোনও রকম স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অথচ অদ্ভুতভাবে নীরব প্রশাসন। বিদ্যালয়ের তরফে হিমাদ্রিনাথ মৌলিক জানান, স্কুল চালানোর অভিযোগ ঠিক নয়। সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুব অল্প সংখ্যক ছাত্রছাত্রীদের শুধু কোচিং দেওয়া হচ্ছে। স্কুল চালানো হচ্ছে না।

- Advertisement -