ব্রিটিশ আমলের মুদ্রা এবং অলংকারের সন্ধান পেল ঘোষপুকুর বনদপ্তর

155

ফাঁসিদেওয়া, ৫ ফেব্রুয়ারিঃ জঙ্গলে কাজ করার সময় বনদপ্তরের ঘোষপুকুর রেঞ্জ পুরোনো দিনের মুদ্রা এবং অলংকারের সন্ধান পেল। শুক্রবার ঘোষপুকুর রেঞ্জের সাতবিল এলাকায় জঙ্গলে বনদপ্তরের তরফে সাফাইয়ের কাজকর্ম চালানোর সময় শ্রমিকরা প্রথমে বিষয়টি লক্ষ্য করেন। এরপর মাটি আরও খুঁড়তেই বেরিয়ে আসে কাঁসার ২টি বাটি। এছাড়াও, একটি ১৮৮৫ সালের ব্রিটিশ আমলের ভিক্টোরিয়ার প্রতিকৃতি মুদ্রিত ১ টাকার কয়েন, প্রচুর সিকি আনা সহ ২৫টি মুদ্রা উদ্ধার হয়েছে।

তবে, বেশিরভাগ মু্দ্রার ওপর মাটি জমে যাওয়ায় সেগুলোর পরিচিতি জানা সম্ভব হয়নি। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনুমান ব্রিটিশ আমলের এই মুদ্রা কেউ জঙ্গলে মাটির নীচে লুকিয়ে রেখেছিল। বনদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, পুরোনো দিনের আদিবাসীদের পায়ের তোরা, গলার, নাকের এবং কানের অলংকারও উদ্ধার হয়েছে। ঘটনার খবর চাউর হতেই এলাকাজুড়ে বিষয়টিকে কেন্দ্র করে ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়ায়।

- Advertisement -

অভিজ্ঞরা মনে করছেন, পুরোনো দিনের এই সমস্ত সামগ্রীর বর্তমান বাজার মূল্য লক্ষাধিক টাকা। ঘোষপুকুর রেঞ্জ ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় পুলিশ এবং প্রশাসনকে জানিয়েছে। জঙ্গলের মাঝে মাটির নীচ থেকে পুরোনো দিনের সামগ্রী উদ্ধার হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে, নানান জল্পনা তৈরি হয়েছে। অনেকের ধারণা ওই এলাকায় বসবাসকারী আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষজন, চোরদের হাত থেকে সম্পত্তি রক্ষা করতে জঙ্গলে লুকিয়ে রেখেছিলেন।

ঘোষপুকুর রেঞ্জার সোনম ভুটিয়া জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে কিছুই বলা সম্ভব নয়। তবে, তিনি ব্রিটিশ আমলের মুদ্রা এবং আলংকার উদ্ধার হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, আমরা বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তাঁদের নির্দেশ অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। ফাঁসিদেওয়ার বিডিও সঞ্জু গুহ মজুমদার বলেন, বনদপ্তরের তরফে বিষয়টি আমাদের জানানো হয়েছে। আমরা এই তথ্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাচ্ছি।