কলেজ যাওয়ার টাকা বাঁচিয়ে ভবঘুরেদের খাবার বিতরণ করলেন আইন কলেজের ছাত্রী

372

ফাঁসিদেওয়া, ১৬ মেঃ লকডাউনে দুঃস্থদের সাহায্য করা হলেও, বিভিন্ন এলাকায় ভবঘুরেদের নিয়ে ভাবা হচ্ছে না। ফলে, তাঁরা অভুক্ত থেকে যাচ্ছেন। তবে, এক্ষেত্রে ফাঁসিদেওয়া ব্লকের বিধাননগর ব্যতিক্রমী ভূমিকা পালন করছে। শনিবার বিধাননগরের বাসিন্দা তথা শিবমন্দির ল কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী সাধনা ঘোষ কলেজে যাওয়ার গাড়ি ভাড়া বাঁচিয়ে, সেই টাকায় ভবঘুরে থেকে শুরু করে পুলিশ, স্বাস্থ্য কর্মী এবং সমাজ কর্মীদের মাংস ভাত খাওয়ানোর বন্দোবস্ত করলেন। এলাকাবাসী ওই ছাত্রীর উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

লকডাউন শুরুর পর থেকেই স্কুল-কলেজ বন্ধ। তাই কলেজ যাওয়ায় বন্ধ। বিধাননগর ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের রবীন্দ্রপল্লীর বাসিন্দা সাধনা ঘোষের কলেজ এখন বন্ধ। তাই, বাবার দেওয়া পকেট মানি এবং কলেজ যাওয়ার গাড়ি ভাড়ার টাকা বেঁচে গিয়েছে। প্রায় ২ মাসে কিছুটা টাকাও বেঁচেছে। তা দিয়েই মানুষের জন্য কিছু করার চিন্তা। এরপর সেই টাকা ভেঙে বাজার এনে, রান্না করে তিনি এদিন খাবার বিতরণ করেছেন। বিধাননগর এলাকার ভবঘুরে ছাড়াও, পুলিশ, স্বাস্থ্য কর্মী এবং সমাজকর্মী, মূলত যারা রাস্তায় এই করোনা পরিস্থিতিতেও কর্তব্যরত, তাঁদেরও খাবার বিতরণ করা হয়। যদিও, সাধনা ঘোষ এসকল উদ্যোগের পেছনে অকপটে বিধাননগরের সমাজসেবী বাপন দাসের অনুপ্রেরণার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন।

- Advertisement -

সাধনা জানিয়েছেন, লকডাউনের পর থেকে ভবঘুরেদের জন্য খাওয়ার বন্দোবস্ত করছেন। সেই উদ্যোগ সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখছিলেন। এরপরই তিনি সিদ্ধান্ত নেন, এবারে ভবঘুরেদের রান্না করে খাবার দেবেন। তিনি আরও জানান, সিদ্ধান্ত নিতেই এদিন বাপন দাস এবং স্থানীয় সমাজসেবীদের সহায়তায় সমাজের জন্য একাজ করতে পেরে তিনি খুব আনন্দিত বলে জানিয়েছেন৷