গণধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে কলেজ ছাত্রীর গায়ে আগুন

95
ছবি: প্রতীকী

লখনউ: হাথরস, উন্নাওয়ের পর ফের খবরের শিরোনামে উত্তরপ্রদেশ। গণধর্ষণের চেষ্টা সফল না হওয়ায় এবার এক তরুনীর গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয় অভিযুক্তরা। বুধবার শাহজাহানপুরের জাতীয় সড়কের পাশ থেকে ওই তরুনীকে উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি বর্তমানে লখনউয়ের একটি সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর শরীরের ৭২ শতাংশই পুড়ে গিয়েছে।
পুলিশ সূত্রে খবর, ওই তরুনী বিএ দ্বিতীয় বর্ষের ওই ছাত্রী। এদিন রাতে তাঁকে স্থানীয়রা রাস্তার কাছেই নগ্ন ও অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে। পুলিশকে খবর দেওয়া হলে তারা এসে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করান। বর্তমানে তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। সেই তরুণী পুলিশকে জানিয়েছেন, তিন ব্যক্তি গ্রামের একটি খেতে নিয়ে গিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। কিন্তু তাতে সফল না হওয়ায় তাঁর শরীরে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়।
ঘটনার তদন্তে নেমে সেখানকার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তাতে দেখা গিয়েছে, ঘটনার সময়ের কিছুক্ষণ আগে কলেজের চতুর্থ তলায় নিজের ক্লাসরুমের বাইরে বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করছিলেন তরুণী। পরে তিনি লাইব্রেরীতে চলে যান। সিসিটিভি ফুটেজে আরও দেখা গিয়েছে, কলেজে ঢোকার ২০ মিনিটের মধ্যেই ভাঙা পাঁচিল দিয়ে বেরিয়ে ক্যানাল রোড ধরে একাই হাঁটছেন ওই তরুণী। কোথায় যাচ্ছিলেন তিনি, তা জানতে কলেজের বাকি ছাত্রদের সঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।