অন্দরানফুলবাড়ি কেন্দ্রে পাকা রাস্তার কাজের সূচনা

109

তুফানগঞ্জ: অন্দরানফুলবাড়িবাসীর বহুদিনের স্বপ্নপূরণ হতে চলেছে পাকা রাস্তা শিলান্যাসের মধ্যে দিয়ে। এতে উপকৃত হবেন তুফানগঞ্জ শহরের বাসিন্দা সহ অন্দরানফুলবাড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের বটতলা, পালপাড়া, দরিয়াবলাই সহ দেওচড়াই এলাকার প্রায় ৩০হাজার বাসিন্দা।

তুফানগঞ্জ ১ ব্লকের অন্দরানফুলবাড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের তুফানগঞ্জ পুরসভার সুইমিং পুল থেকে দরিয়াবলাই হয়ে দেওচড়াই মোড় ৩১নং জাতীয় সড়ক পর্যন্ত ৬ কিমি ৬৫০ মিটার রাস্তার কাজের সূচনা করেন বৃহস্পতিবার কোচবিহার জেলা পরিষদের সহ-সভাধিপতি পুষ্পিতা রায় ডাকুয়া। পূর্ত দপ্তরের আরআইডিএফ (নাবার্ড)-এর আর্থিক সাহায্যে পাকা রাস্তার কাজের সূচনা হয়।

- Advertisement -

রাস্তার কাজের সূচনা হওয়ায় খুশি এলাকার সকলেই। দশম শ্রেণীর ছাত্রী রত্না সরকার জানায়, বহুদিনের স্বপ্ন পূরণে আমরা খুশি। অন্দরানফুলবাড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ধরনীকান্ত বর্মণ  বলেন, ‘এলাকার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন, আশা-আকাঙ্খা পূরণ হতে চলেছ। তুফানগঞ্জ শহর সহ অন্দরানফুলবাড়ি ১গ্রাম পঞ্চায়েতের বটতলা, পালপাড়া, দরিয়াবলাই, দেওচড়াই সহ ৩০ হাজারের বেশি মানুষ উপকৃত হবেন। এলাকায় খুশির হাওয়া বইছে। কয়েকদিনের মধ্যেই কাজ শুরু হয়ে জোরকদমে কাজ চলবে।‘ জেলা পরিষদের সহ-সভাধিপতি পুষ্পিতা রায় ডাকুয়া বলেন, ‘তুফানগঞ্জ শহরের যানজট কমাতে এই রাস্তাটির গুরুত্বপূর্ণ অপরিসীম। বৃহস্পতিবার অন্দরানফুলবাড়ি ১গ্রাম পঞ্চায়েতের বটতলা এলাকায় ফিতা কেটে রাস্তার কাজের সূচনা করা হয়।‘

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তুফানগঞ্জ ১ ব্লকের পঞ্চায়েতের সমিতির সভাপতি পার্বতী বর্মণ, এলাকা বিশিষ্ট সমাজসেবী তথা শিক্ষক ক্ষিতীশ সরকার, অন্দরানফুলবাড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ধরনীকান্ত বর্মণ, জীতেন বর্মণ প্রমুখ।