মিড ডে মিলের সামগ্রী বণ্টনে প্রশাসনিক টালবাহানার অভিযোগ উত্তর দিনাজপুরে

92

রায়গঞ্জ: জেলা প্রশাসনের কর্তাদের বিরুদ্ধে মিড ডে মিলের খাদ্যসামগ্রী বণ্টনে টালবাহানার অভিযোগ তুলে সরব হলেন তৃণমূলের প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের জেলা নেতৃত্ব। অভিযোগ, রাজ্যের অন্যান্য জেলায় এমাসের মিড ডে মিলের সামগ্রী বণ্টনের কাজ ইতিমধ্যেই শেষ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু উত্তর দিনাজপুর জেলার কোনও স্কুলে এখনও সামগ্রী বিলিই সম্ভব হয়নি। বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রশাসনের কর্তাদেরই দায়ী করেছেন শাসক দলের শিক্ষক সংগঠন। সংগঠনের নেতৃত্ব বিষয়টি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছেন। অন্যদিকে, জেলায় মিড ডে মিল বণ্টনের দায়িত্বে থাকা ওসি প্রবীণ সোরেনকে ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ না করায় এবিষয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

গত বছর লকডাউনের সময় অন্য সমস্ত কিছুর সঙ্গে বন্ধ হয়ে যায় স্কুলও। তবে পড়ুয়াদের কথা মাথায় রেখে রাজ্য সরকারের তরফে মিড ডে মিলের সামগ্রী বণ্টনের ব্যবস্থা করা হয়। এবছরও যা জারি রয়েছে। অভিযোগ, অন্য জেলাগুলিতে মিড ডে মিলের সামগ্রী বিলি ধারাবাহিকভাবে চললেও উত্তর দিনাজপুরে সামগ্রী ঠিকঠাক বণ্টন হচ্ছে না।

- Advertisement -

তৃণমূলের প্রাথমিক শিক্ষা সংগঠনের জেলা সভাপতি গৌরাঙ্গ চৌহান জানিয়েছেন, জেলা প্রশাসনের চূড়ান্ত গাফিলতির জন্যই চলতি মাসে পড়ুয়াদের মিড মিলের খাদ্যসামগ্রী বিলি করা সম্ভব হয়নি। কাকে টেন্ডার দেওয়া হয়েছে সেটা নিয়ে তাঁরা অন্ধকারে রয়েছেন। কর্ণজোড়া হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক পঞ্চব্রত কুন্ডু জানান, ২০ মের মধ্যে পড়ুয়াদের মিড ডে মিলের সামগ্রী দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তা এখনও সম্ভব হয়নি। তৃণমূলের জেলা সভাপতি কানাইলাল আগরওয়াল জানান, বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের গাফিলতি থাকলে তা কোনওমতেই বরদাস্ত করা হবে না।