বিমল গুরুং কন্যার বিরুদ্ধে ভুয়ো শংসাপত্র দিয়ে ভরতি হওয়ার অভিযোগ

162

কলকাতা, ২৫ জুনঃ একদা দার্জিলিংয়ের একছত্র অধিপতি বিমল গুরুংয়ের কন্যার বিরুদ্ধে শিক্ষাক্ষেত্রে গুরুতর অনিয়মের অভিযোগ উঠল। দার্জিলিং জেলা প্রশাসন অনুসন্ধান  করে জেনেছে আইসিএসই পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওযা সত্ত্বেও আর একজনের ভুয়ো শংসাপত্র দিয়ে গুরুং কন্যা অন্নপূর্ণা একাদশ শ্রেণিতে ভরতি হয়েছিলেন। এই বিষয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দার্জিলিং জেলা প্রশাসন বিদ্যালয় শিক্ষার প্রধান সচিবকে চিঠি দিয়েছে। যা রাজ্য সরকার বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। চিঠিতে জানানো হয়, বিমল গুরুংয়ের কন্যা অন্নপূর্ণা গুরুং (জন্ম ২৫ অক্টোবর, ১৯৮৭) ১৯৯৪ সালে দার্জিলিংয়ের মূর হেমন বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণিতে ভরতি হয়।  ২০০৪ সালে আইসিএসসি পরীক্ষা দিলেও অকৃতকার্য হয়। দার্জিলিং জেলা প্রশাসনের অভিযোগ, এরপর জনৈক নন্দা গুরুংয়ের ভুয়ো শংসাপত্র পেশ করে অন্নপূর্ণা গুরুং কার্সিয়াংয়ের হিমালি বোর্ডিং বিদ্যালয়ে একাদশ শ্রেণিতে ভরতি হয় এবং পড়াশোনা করে। অনুসন্ধানে দেখা গিয়েছে, নেপালের রুপণদিহি জেলার কারাইসুর পূর্ণ বাহাদুর গুরুংয়ের কন্যা নন্দা গুরুং (জন্ম ২০ মার্চ ১৯৮৭) একই বছরে (২০০৪ সাল) দার্জিলিংয়ে গ্রিন লনস বিদ্যালয় থেকে আইসিএসই পরীক্ষা দেয়। কৃতকার্যও হয়। বিমল গুরুং কন্যা অন্নপূর্ণা পরীক্ষায় অকৃতর্য হওয়া সত্ত্বেও নন্দা গুরুংয়ের শংসাপত্র দিয়ে কার্সিয়াংয়ের বিদ্যালয়ে একাদশ শ্রেণিতে ভরতি হয়।