মাঝরাস্তায় গাড়ি নিয়ে তাড়া, তরুণী ও তাঁর হবু স্বামীকে হেনস্তা

51
প্রতীকী

বর্ধমান: চারচাকা গাড়ি নিয়ে তাড়া করে এক তরুণীর সঙ্গে অভব্য আচরণ এবং তাঁর হবু স্বামীকে মারধরের অভিযোগ উঠল একদল যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনায় বর্ধমান থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই তরুণী। অভিযোগের ভিত্তিতে দোষীদের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।

ওই তরুণীর বাড়ি বর্ধমান শহরের শাঁখারিপুকুর পিরতলা এলাকায়। তরুণীর অভিযোগ, রবিবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের গোলাপবাগ মোড়ের কাছে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের সামনে। সেই সময় তিনি ও তাঁর হবু স্বামী গোলাপবাগের বিশ্ববিদ্যালয়ের এলাকা দিয়ে বাইকে চেপে যাচ্ছিলেন। তখন হঠাৎ একটি চারচাকা গাড়ি তাঁদের বাইকের পাশ দিয়ে যেতে থাকে। ওই গাড়িতে ৭-৮ জন ছেলে ছিল। তারা গাড়ি থেকে অশ্লীল ভাষায় তাঁদের দেখে অঙ্গভঙ্গি করতে থাকে। তরুণী তাঁর অভিযোগে এও দাবি করেছেন, তাঁরা জিটি রোডে ওঠার পর ওই চারচাকা গাড়িটি তাঁদের সামনে এসে দাঁড়ায়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই একজন যুবক তাঁর হাত ধরে টানাটানি করা শুরু করে। সেই সময়ে হবু স্বামী তাঁকে উদ্ধার করতে যান। তাঁকেও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। এরপর পুলিশ আসছে দেখে জামার কলার ধরে তাঁর হবু স্বামীকে চলন্ত গাড়িতে টানতে টানতে তুলে নেয় অভিযুক্তরা। পরে ২০০ মিটার দূরে গাড়ি থেকে তাঁকে নামিয়ে দিয়ে যুবকরা পালিয়ে যায়। তরুণীর হবু স্বামী দাবি করেছেন, সোমবার সকালে ওই যুবকরা তাঁর হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ করে জানায় যে তারা ‘ভুল করে ফেলেছে’।

- Advertisement -

যদিও গাড়িতে থাকা যুবকদের একজন দাবি করেছে, গাড়িতে তারা তিনজন ছিল। গাড়িতে বসে তারা নিজেদের মধ্যে হইহুল্লোড় করছিল। এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করে ওই যুবক। জেলার পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন জানিয়েছেন, অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করা হয়েছে।