আলিপুরদুয়ারের বন্ধ চা বাগানের মালিকদের বিরুদ্ধে দুই থানায় অভিযোগ

265

বীরপাড়া, ১৫ ফেব্রুয়ারিঃ আলিপুরদুয়ার জেলার তিনটি অচল চা বাগানের মালিকপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন শ্রমিক, কর্মচারি ও তাদের সংগঠন। শনিবার কালচিনি ব্লকের রায়মাটাং ও কালচিনি চা বাগানের শ্রমিক ও কর্মচারিরা কালচিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এদিকে, ডানকান টি কোম্পানির কর্ণধার গৌরিপ্রসাদ গোয়েঙ্কার বিরুদ্ধে বীরপাড়া চা বাগানের শ্রমিক ও কর্মচারিরা বীরপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ওই তিনটি চা বাগানের শ্রমিক কর্মচারিদের নের্তৃত্ব দেন চা বাগান তৃণমূল কংগ্রেস মজদুর ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ। পাশাপাশি তৃণমূলের ওই চা শ্রমিক কর্মচারিদের সংগঠনের তরফে রায়মাটাং ও কালচিনি চা বাগান দুটির মালিকপক্ষের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক অসীম মজুমদার বলেন, ‘রায়মাটাং ও কালচিনি চা বাগান দুটির মালিক রোশনলাল আগরওয়াল শ্রমিকদের বকেয়া পরিশোধ না করে বিনা কারণে গত ২৬ অক্টোবর বাগান বন্ধ করেন। শ্রম দপ্তর ও জেলা প্রশাসন দু’বার ত্রিপাক্ষিক বৈঠক ডাকলেও মালিক প্রতিনিধি বৈঠকে আসেননি। বাগান বন্ধ থাকায় শ্রমিকরা সংকটে ভুগছেন। শ্রমিকদের গ্ৰ‍্যাচুইটি ও ভবিষ্যনিধির প্রায় ৯০ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। গত কয়েক বছরে অন্তত পাঁচবার মালিক বাগান বন্ধ করেছেন। বাগানের কোনো চুক্তি মানা হচ্ছে না। এই কারণে মামলা করা হয়েছে। ৭ দিনের মধ‍্যে পুলিশ মালিকের বিরুদ্ধে আইননুগ ব‍্যবস্থা না নিলে আমরা রাস্তায় নেমে আন্দোলন শুরু করব।’ পাশাপাশি একই অভিযোগ উঠেছে বীরপাড়া চা বাগানেও। এই বিষয়ে সংগঠনের সহ সভাপতি মান্নালাল জৈন বলেন, ‘চা বাগানের শ্রমিক কর্মচারিদের জীবন ও জীবিকা নিয়ে মালিকপক্ষের ছেলেখেলা বরদাস্ত করা হবে না।’ চা বাগানগুলি বন্ধ থাকায় এই বিষয়ে মালিকপক্ষের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, আইনানুগ পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।