করোনার জুজু দেখিয়ে প্রসূতিদের নিয়ে ব্যবসার অভিযোগ রায়গঞ্জের নার্সিংহোমগুলিতে

93

রায়গঞ্জ: করোনার জুজু দেখিয়ে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে প্রসূতিদের নিয়ে দেদার ব্যবসা করছে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ, রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা চলায় আতঙ্ক রয়েছে। বিশেষ করে প্রসূতিদের নিয়ে আতঙ্ক অনেকটাই বেশি। সেই কারণে আশাকর্মীরাও সেখানে নিয়ে যেতে নারাজ। প্রসূতিরা করোনা সংক্রমিত হতে পারে বলেই আশঙ্কা করছেন প্রত্যেকে। আর এই পরিস্থিতির সুযোগ নিচ্ছে শহরের কিছু কিছু নার্সিংহোম। আতঙ্কের কথা ফলাও করে প্রচার করে প্রসূতিদের নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ।

আশাকর্মীদের দাবি, প্রসূতিদের রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজেই ভর্তি করানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের অভিযোগ, করোনার ভয় দেখিয়ে প্রসূতি মায়েদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে রায়গঞ্জ শহরের বিভিন্ন নার্সিংহোমে। বিষয়টি স্বাস্থ্য দপ্তরকে তদন্ত করে দেখা উচিত। উত্তর দিনাজপুর জেলার নাগরিক কমিটির সম্পাদক তপন চৌধুরী বলেন, ‘দীর্ঘ ১০ থেকে ১৫ দিন ধরেই প্রসূতিদের ভর্তি করানো হচ্ছে। শহরের বিভিন্ন নার্সিংহোমে।’

- Advertisement -

প্রসূতির সংখ্যা এত কম সে ব্যাপারে মন্তব্য করতে নারাজ রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ প্রিয়ঙ্কর রায়। তিনি জানান, রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দুটি ফ্লোর কোভিড ওয়ার্ড করা হয়েছে। তবে প্রসূতিদের আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সমস্ত লিফট ও মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাস স্যানিটাইজ করা হচ্ছে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক কার্তিক চন্দ্র মণ্ডলকে এই প্রসঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি মন্তব্য করতে চাননি।