হাসপাতালে নিম্নমানের পরিষেবা, সরব সাংসদ

632

জলপাইগুড়িঃ আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করা হলেও ন্যূনতম পরিষেবা সেখানে রাখা হয়নি। শুধু তাই নয়, সকলকে একই গাড়িতে ঠাসাঠাসি করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। গরম জল বা শিশুদের জন্য খাবার চাইলেও তা দেওয়া হচ্ছে না। এমনই অভিযোগ তুলেছেন করোনায় মৃত মহিলা সুনীতা দেবী সিংয়ের পরিবারের সদস্যরা। এদিন সুনীতা দেবী সিংয়ের ভাস্তি স্মৃতি সিং টেলিফোনে প্রতিবেদকের কাছে এই ধরনের চূড়ান্ত অব্যবস্থার কথা তুলে ধরার পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের এই অব্যবস্থার কথা শুধু সৃষ্টি সিংয়ের একার নয়। অন্য আইসোলেশন ওয়ার্ডে যাঁদের রাখা হয়েছে তাঁদের তরফেও একই অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।

উল্লেখ্য, রবিবার রাতে সুনীতা দেবী সিংয়ের পরিবারের ৪ জন সদস্য ছাড়াও আরও ৯ জনকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ঘুরিয়ে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে নিয়ে এসে ভর্তি করা হয়। এই ১৩ জনের মধ্যে দুটি শিশুও রয়েছে। গতকাল রাত ১০টায় তাঁদের জলপাইগুড়ি নিয়ে আসা হয়। এদিকে রোগীদের এই অভিযোগ নিয়ে জেলা হাসপাতাল সুপার এবং জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগ করা হলেও তাঁরা ফোন ধরেননি। জলপাইগুড়ির জেলাশাসককে এ বিষয়ে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন সাংসদ শান্তা ছেত্রী।

- Advertisement -